মেইন ম্যেনু

পাবনার ঈশ্বরদীতে হত্যা মামলায় ৩ জনের যাবজ্জীবন

পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলার ফতেমোহাম্মদপুর এলাকার চাঞ্চল্যকর নাসিম হত্যা মামলায় ৩ জনের যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। সাজাপ্রাপ্তরা হলেন, ঈশ্বরদী উপজেলার রহিমপুর লোকোশেড এলাকার মৃত আবুল হোসেনের ছেলে রিংক একই এলাকার মৃত তাজুল ইসলামের ছেলে সুজন, ও আবুল কাশেম ওরফে কাশীরামের ছেলে মাসুম।

বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে পাবনার স্পেশাল জজ আবুল হোসেন পাটোয়ারী এ রায় দেন।

কোর্ট ইন্সপেক্টর ছকির উদ্দিন জানান, ২০০৭ সালের ১১ ডিসেম্বর আসামিরা (দণ্ডপ্রাপ্তরা) পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলার ফতেমোহাম্মদপুর এলাকার আবুল কাশেমের ছেলে নাসিমকে (২০) অপহরণের পর হত্যা করে লাশ লোকোশেড এলাকার সেপটিক ট্যাংকের মধ্যে লুকিয়ে রাখে। হত্যার পাঁচদিন পর ১৬ ডিসেম্বর নাসিমের গলিত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

এ ব্যাপারে নিহতের বাবা আবুল কাশেম বাদী হয়ে ৫ জনকে আসামি করে ঈশ্বরদী থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করে। পরে মামলার তদন্ত শেষে পুলিশ ৫ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল করেছে। পরবর্তীতে ১৭ জন সাক্ষির সাক্ষ্য প্রমাণ শেষে পাবনার স্পেশাল জজ আবুল হোসেন পাটোয়ারী আসামি সুজন, রিংকু ও
মাসুমকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দেন।

সরকার পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন স্পেশাল পিপি অ্যাডভোকেট খন্দকার রকিব উদ্দিন পুরু, কোর্ট ইন্সপেক্টর ছকির উদ্দিন এবং সিএসআই আব্দুল কাইয়ুম। আসামি পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট ফরিদ উদ্দিন আহমেদ। রায় ঘোষণার পর আসামি পক্ষের আইনজীবী বলেন, তারা এই রায়ের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে আপিল করবেন।






মন্তব্য চালু নেই