মেইন ম্যেনু

পাবনার ঈশ্বরদীতে রেলওয়ের জায়গায় অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান শুরু

পাবনার ঈশ্বরদীতে রেলওয়ের জায়গায় অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান গতকাল বুধবার পরিচালনা করা হয়। রেলওয়ের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা পরিদর্শনে আসবেন এইজন্য পাকশী রেলওয়ে এই উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন। গতকাল ঈশ্বরদী শহরের রেলওয়ে গেট ও বুকিং অফিসসহ কয়েকটি স্থানে প্রায় ৩০টি স্থাপনা উচ্ছেদ করে পাকশী বিভাগীয় ভূসম্পত্তি দপ্তর।

অভিযানে নেতৃত্বদেন বিভাগীয় রেলওয়ে ভূসম্পত্তি কর্মকর্তা (ডিইও) মোস্তাক আহমেদ। বিপুলসংখ্যক রেল ও বেঙ্গল পুলিশ, আনসার, নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের নিয়ে সকালে শহরের রেলওয়ে গেটের লেবেল ক্রসিং দখলমুক্ত করা হয়। এরপর বাজারের রেলওয়ে বুকিং অফিসসহ স্টেশনের আশপাশে উচ্ছেদ অভিযান চালানো হয়।

একটি বিস্তস্থ সূত্র জানায়, রেলওয়ের একজন বড় কর্মকর্তা আগামি ৬ মে পাকশী রেল বিভাগে পরিদর্শনে আসছেন। বড় কর্মকর্তার আগমনকে ঘিরে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা তৎপর হয়ে উঠেছেন। তবে অভিযানটি তাদের নিজস্ব কর্মসূচী। সুত্রটি আরও জানায়, ওই বড় কর্মকর্তা পরিদর্শন শেষে চলে যাওয়ার পর যা তাই হয়ে যায়। রেলওয়ের কর্মকর্তাদের ম্যানেজ করেই ধিরে ধিরে গড়ে উঠে অবৈধ স্থাপনা।

পাকশী বিভাগীয় রেলওয়ে ভূসম্পত্তি কর্মকর্তা (ডিইও) মোস্তাক আহমেদ জানান, নিয়মিত অভিযানের অংশ হিসেবে উচ্ছেদ অভিযান শুরু করা হয়েছে, চার মে পর্যন্ত এই অভিযান চলবে। তিনি বলেন, রেলওয়ে গেট এলাকায় অবৈধ দোকান ঘর থাকার কারণে গেট ম্যানের ঘর থেকে সিগনাল এবং গাড়ি দেখা যায় না। এতে নানা সমস্যার সৃষ্টি হয়, তাই অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হচ্ছে।

ঈশ্বরদী রেলওয়ে জিআরপি থানার ওসি হুমায়ুন কবির জানান, রেলের জায়গায় অবৈধভাবে গড়ে উঠা স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান শুরু হয়েছে। অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযানে নেতৃত্ব দেন পাকশী বিভাগীয় ভূসম্পত্তি কর্মকর্তা মোস্তাক আহমেদ। আইনশৃংখলা রক্ষায় উচ্ছেদ অভিযানে জিআরপি ও বেঙ্গল থানার পুলিশ, আনসার ও নিরাপত্তাবাহিনীর সদস্যরা দায়িত্ব পালন করেন।






মন্তব্য চালু নেই