মেইন ম্যেনু

নাইস নূরের বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করলেন মন্ত্রী এ কে এম মোজাম্মেল হক

নাইস নূরের লেখা অষ্টম বই ‘জেবার প্রিয় বারবি ডল’_এর মোড়ক উন্মোচন করলেন মুক্তিযুদ্ধ-বিষয়ক মন্ত্রী এ কে এম মোজাম্মেল হক। গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যা ৬ টায় সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সাহস পাবলিকেশন্সের সামনে বইটির মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠিত হয়।

বইটি প্রসঙ্গে মন্ত্রী এ কে এম মোজাম্মেল হক বলেন, “বইটিতে লেখিকার বেশ কিছু গল্প আছে। এর মধ্যে মুক্তিযুদ্ধ ও ভাষা নিয়ে লেখা গল্পও আছে। আমি আশা করছি, বইটি শিশুদের অত্যন্ত প্রিয় হবে। এই গল্পের বইয়ের মাধ্যমেও মুক্তিযুদ্ধ এবং যুদ্ধের বীর সৈনিকদের কথা নতুন প্রজন্ম জানতে পারবে। আমি এই বইয়ের বহুল পাঠক ও জনপ্রিয়তা কামনা করছি। আশা করছি, নাইস নূর ভবিষ্যতে আরো সুন্দর সুন্দর বই শিশুদের ও তরুনদের জন্য লিখবে। মুক্তিযুদ্ধ কিংবা সামাজিক প্রেক্ষাপট অথবা কীভাবে মানুষের স্বপ্ন বাস্তবায়ন হয় এই সমস্ত বিষয় নিয়ে তিনি লিখবেন। আমি লেখিকা নাইস নূরের উজ্জ্বল ভবিষ্যত কামনা করি। ”

নাইস নূর বলেন, “আমি খুব আনন্দিত এ কে এম মোজাম্মেল হক স্যার আমার বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করেছেন। স্যারকে অনেক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা। বইটিতে মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে দুটি গল্প আছে। একটি ‘আমিও মুক্তিযোদ্ধা’ অন্যটি ‘ফারহানের পতাকা সেলফি’। আমি চেষ্টা করেছি শিশুদের সহজ ভাবে দেশের মুক্তিযুদ্ধ ও বিজয়ের গল্প জানাতে। সবাই দোয়া করবেন।”

বইটির প্রকাশক সাহস রতন বলেন, “বইটি অনেক যত্ন নিয়ে করার চেষ্টা করেছি। জেবার প্রিয় বারবি ডল’ গ্রন্থের গল্পগুলো পড়েই মনে হয়েছে বইটি ভিন্ন ঢংয়ে উপস্থাপনা করা দরকার। কারণ প্রতিটি গল্পেই শিশুদের জন্য বিশেষ শিক্ষণীয় বিষয় রয়েছে। আমার বিশ্বাস, নাইস নূরের আর সব বইয়ের মতো জেবার প্রিয় বারবি ডল বইটিও শিশুরা লুফে নেবে।”

এছাড়া বইটির মোড়ক উন্মোচনের সময় মীরাক্কেল খ্যাত তারকা আবু হেনা রনি, হৃদয়, উপস্থাপক আল নাহিয়ান, কবি ফারাদীবা ইয়াসমীন গ্লোরী, যুক্তরাষ্ট্রের একজন সিভিল অ্যান্ড এনভায়রনমেন্টাল ইঞ্জিনিয়ার ড্যানিয়াল স্মিথ ও লেখকের অন্যান্য শুভাকাঙ্খীরা উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করেন সজিব রুম্মান।

‘জেবার প্রিয় বারবি ডল’ বইটির প্রচ্ছদ করেছেন নিয়াজ চৌধুরী তুলি। বইটির মূল্য রাখা হয়েছে ১৫০ টাকা। বইটিতে মোট সাতটি গল্প রয়েছে। গল্পগুলো হলো, ‘আমি বাংলাভাষা হবো’, ‘অ’র প্রিয় বন্ধু ঐ’, ‘আমিও মুক্তিযোদ্ধা’, ‘নীল ফুল পরীর গল্প’, ‘জেবার প্রিয় বারবি ডল’, ‘অনিরুদ্ধ ও টমের একদিনের অভিমান’ ও ‘ফারহানের পতাকা সেলফি’।

নাইস নূরের লেখা উল্লেখ্যযোগ্য বইগুলো হলো ‘কার্টুনের দেশে মনিকা’, ‘সাদমানের ক্রিকেটার বন্ধু’, ‘না ছোঁয়ার স্পর্শ’, ইংরেজিতে লেখা রুপকথা গল্পের বই ‘A Tale Of Blind Princess’।






মন্তব্য চালু নেই