মেইন ম্যেনু

ছাত্রী হোস্টেলের বাথরুমে গোপন ক্যামেরা, ধরা পড়ল নগ্ন ছবি!

ছাত্রীদের হোস্টেলের বাথরুমে গোপন ক্যামেরা বসানো হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। আর এতেই ফুঁসে ওঠে গোটা পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের একটি কলেজের শিক্ষার্থীরা। তাদের অভিযোগ, এর মাধ্যমে গোপনে তাদের নগ্ন ছবি ও ভিডিও ধারণ করা হচ্ছে।

রাজ্যের নয়ডার জেএসএস কলেজের ছাত্রীরা প্রতিবাদে বিক্ষোভ দেখালে তদন্তের নির্দেশ দেয় কর্তৃপক্ষ। অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

জানা গেছে, ওয়াশরুমে গোপন ক্যামেরা লাগিয়ে রাখা হয়েছে, প্রথম নজরে আসে এক ছাত্রীর। তিনি তা জানান তাঁর দুই হোস্টেল সঙ্গীকে। তারপর সবাই মিলে কলেজের কর্তৃপক্ষের কাছে অভিযোগ জানান। পাশাপাশি বাকি সব ওয়াশরুমেও তল্লাশি শুরু হয়, সেখানেও গোপন ক্যামেরা বসিয়ে রাখা হতে পারে, এহেন সন্দেহ, আশঙ্কায়।

কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, কয়েকদিন আগে হোস্টেলে জল লিক করছে বলে ছাত্রীরা অভিযোগ করায় এক কলের মিস্ত্রীকে নিয়ে আসা হয়। সে জলের লাইন ঠিক করে দিয়ে চলে যায়। সম্ভবত স্পাই ক্যামেরা লাগানোর কীর্তি তারই বলে সন্দেহ করা হচ্ছে।

ডেপুটি পুলিশ সুপার বিশ্বজিত শ্রীবাস্তব বলেছেন, আমরা গোপন ক্যামেরাটি বাজেয়াপ্ত করেছি।তাতে একটি আইজিবি মেমরি কার্ড ছিল।সেটি নষ্ট করে ফেলা হয়েছে।সিসিটিভি ফুটেজ থেকে বোঝার চেষ্টা হচ্ছে, কলের মিস্ত্রী না অন্য কেউ ক্যামেরাটি লাগিয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই