মেইন ম্যেনু

গ্রামীণ ব্যাংকের ৩ কর্মকর্তার ১০ বছরের কারাদণ্ড

বরিশালে ক্ষুদ্র ঋণ গ্রহীতাদের অর্থ আত্মসাতের দায়ে গ্রামীণ ব্যাংকের সাবেক শাখা ব্যবস্থাপকসহ তিন কর্মকর্তাকে ১০ বছর করে কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এছাড়া প্রত্যেককে পাঁচ লাখ টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে আরও ছয় মাসের কারাদণ্ড দেয়া হয়।

বুধবার বিকেলে বরিশাল বিভাগীয় স্পেশাল জজ আদালতের বিচারক দিলিপ কুমার ভৌমিক ওই দণ্ডাদেশ দেন।

দণ্ডিতরা হলেন- গ্রামীণ ব্যাংকের বরিশাল সদর উপজেলার রায়পাশা-কড়াপুর শাখার সাবেক শাখা ব্যবস্থাপক দেলোয়ার হাসান, কর্মকর্তা রতন প্রভা হালদার ও মো. ইব্রাহিম খলিল।

রায় ঘোষণার সময় দণ্ডপ্রাপ্ত প্রভা হালদার আদালতে উপস্থিত ছিলেন। অন্যরা পলাতক।

দণ্ডপ্রাপ্ত দেলোয়ার যশোরের ছাতিয়ানতলা এলাকার জয়নাল আবেদীনের ছেলে, রতন প্রভা পিরোজপুরের নেছারাবাদ উপজেলার মাদ্রা বাজার এলাকার প্রভাষ মণ্ডলের স্ত্রী ও ইব্রাহিম খলিল একই উপজেলার আউরিয়া এলাকার মোকছেদ আলীর ছেলে।

আদালতের বেঞ্চ সহকারী হারুন আর রশিদ মামলার নথির বরাত দিয়ে জানান, বরিশাল সদর উপজেলার রায়পাশা-কড়াপুর শাখায় কর্মরত থাকাকালে দণ্ডপ্রাপ্তরা ২০১১ সালের ২০ জুন থেকে ৭ জুলাই ৯ সদস্যের নামে ৮৫ হাজার টাকার ঋণ উত্তোলন করেন। ওই টাকা আত্মসাৎ করার অভিযোগে ২০১৩ সালের ২৪ নভেম্বর দুদকের সহকারী পরিচালক ওয়াজেদ আলী গাজী বাদী হয়ে কোতোয়ালি মডেল থানায় মামলা করেন।

২০১৫ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি দুদকের উপ-সহকারী পরিচালক নাজিমউদ্দিন তিনজনকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট জমা দেন। বিচারক ১২ জনের সাক্ষ্য শেষে ওই রায় ঘোষণা করেন।






মন্তব্য চালু নেই