মেইন ম্যেনু

কোহলির দৈনিক আয় চার কোটি রুপি!

বর্তমান সময়ে মাঠ এবং মাঠের বাইরের আলোচিত নাম বিরাট কোহলি। ভারতের ক্রিকেট অধিনায়ক যেমন মাঠে ব্যাট হাতে দারুণ ছন্দে আছেন। ঠিক তেমনি মাঠের বাইরেও দারুণ ছন্দে আছেন। একের পর এক বিভিন্ন কোম্পানি ও প্রতিষ্ঠানের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হয়ে কোটি কোটি টাকা আয় করছেন।

গত সোমবার পুমা কোম্পানির সাথে ৮ বছর চুক্তি স্বাক্ষর করেছেন তিনি। কোহলি নিজের ক্রিকেট ক্যারিয়ারের শেষ দিন পর্যন্ত পুমার ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হয়ে থাকবেন। যার বিনিময়ে কোহলি ভারতীয় মুদ্রায় ১১০ কোটি রুপি পাবেন। এর মধ্য দিয়ে প্রথম কোনো ভারতীয় খেলোয়াড় হিসেবে ১০০ কোটি রুপি নিয়ে কোনো কোম্পানির সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন তিনি। আর এই চুক্তির ফলে অধিনায়ক হওয়ার পর কোহলির দৈনিক আয় গিয়ে দাঁড়িয়েছে ভারতীয় মুদ্রায় ৪ কোটি রুপি!

বিরাট কোহলি ব্র্যান্ড ভেল্যু এত তাড়াতাড়ি বৃদ্ধি পাওয়ার একটাই কারণ, তিনি ক্রিকেটে সাফল্যের ভেলায় ভাসছেন। প্রতিনিয়ত নিজেকে নিয়ে যাচ্ছেন অনন্য উচ্চতায়। কোহলি ক্রিকেটের মূল ফরম্যাট টেস্টে ৪টি দ্বিশতক হাঁকিয়েছেন। সেঞ্চুরি হাঁকানোর দিক দিয়ে শচীনের রেকর্ড তাড়া করছেন।

কোহলি শুধু মাঠেই সীমাবদ্ধ নন, মাঠের বাইরেও একজন সফল ব্যবসায়ী হিসেবে রূপান্তরিত হচ্ছেন। এখন পর্যন্ত কোহলি ১৭টি কোম্পানির সঙ্গে যুক্ত আছেন এবং তাকে ভারতের যুব আইকন মানা হয়। ক্রিকেট জগতে পা রাখার পর কোহলি যতটা আগ্রাসী ছিলেন সেটা বেশ কমে এসেছে অধিনায়কত্ব পাওয়ার পর থেকে। নিজের পারফরম্যান্স উচ্চমুখী হওয়ার পাশাপাশি আচরণগতও উন্নতি হচ্ছে কোহলির। ফলে প্রতিনিয়ত কোহলি নতুন কোম্পানির ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর ‍হিসেবে নাম লেখাচ্ছেন।

২৮ বছর বয়সি বিরাট কোহলি যেভাবে নিজেকে সব বাধা উতরিয়ে অনন্য উচ্চতায় নিয়ে যাচ্ছেন, তা আসলেই প্রশংসনীয়। ২০১৪ সাল থেকে বিজ্ঞাপন জগতের অন্যতম নাম বিরাট কোহলি। ইউরোপের দেশ জার্মানির ক্রীড়া বিষয়ক কোম্পানি অ্যাডিডাসের সঙ্গে ভারতীয় মুদ্রায় ১০ কোটি রুপিতে চুক্তি স্বাক্ষর করেছেন কোহলি। সম্প্রতি স্পোর্টসপ্রো বিরাট কোহলিকে লুইস হেমিলটনের পরে বিশ্বের দ্বিতীয় সবচেয়ে বেশি ‘মার্কেটবল অ্যাথলেট’ হিসেবে ঘোষণা করেছে।

কোহলি শুধু তার স্বদেশি তারকাদের সঙ্গে নয়, বিখ্যাত ফুটবলার ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো, লিওনেল মেসি এমনকি অলিম্পিক চ্যাম্পিয়ন উসাইন বোল্টের সঙ্গেও অর্থ উপার্জনের দিক দিয়ে সমানতালে লড়াই করছেন।






মন্তব্য চালু নেই