মেইন ম্যেনু

৩৩ বছর পর

অবশেষে দখলমুক্ত পাবনায় সুচিত্রার বাড়ি

৩৩ বছরের অপেক্ষার অবসান হলো বুধবার। উচ্চ আদালতের নির্দেশে পাবনার জেলা প্রশাসন দুপুরে বাংলা চলচ্চিত্রের প্রয়াত কিংবদন্তি মহানায়িকা সুচিত্রা সেনের পাবনার পৈত্রিক বাড়িটি জামায়াতে ইসলামী পরিচালিত ইমাম গাজ্জালি ট্রাস্টের কবল থেকে দখলমুক্ত হলো।

পাবনা জেলা প্রশাসনের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের উপস্থিতিতে বুধবার দুপুরে বাড়িটি উদ্ধার করে সরকারি দখলে নিয়ে সেখানে অবৈধভাবে স্থাপিত ইমাম গাজ্জালী ইন্সটিটিউটটি সিলগালা করে দেয় জেলা প্রশাসন। এর আগে প্রতিষ্ঠান কর্তৃপক্ষ তাদের আসবাবপত্র সরিয়ে নেয়।

উল্লেখ্য, জামায়াত পরিচালিত ইমাম গাজ্জালি ট্রাস্ট মহানায়িকা সুচিত্রা সেনের পাবনার পৈত্রিক বাড়িটি দখল করে একটি কিন্ডারগার্টেন স্কুলে রূপান্তর করে রেখেছে বহু বছর ধরে। ২০০৯ সালের ১২ জুন পাবনার তৎকালীন জেলা প্রশাসক ইমাম গাজ্জালি ট্রাস্টকে উচ্ছেদের নোটিশ দেন। ওই বছরের ২২ জুন এ নোটিশের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে রিট আবেদন করে ইমাম গাজ্জালি ট্রাস্ট। ২০১১ সালে এ রিট খারিজ এবং বাড়িটি দখলমুক্ত করে সেখানে সুচিত্রা সেন স্মৃতি সংগ্রহশালা স্থাপনের আদেশ দেন হাইকোর্ট। এরপর হাইকোর্টের আদেশের বিরুদ্ধে আপিলের আবেদনের অনুমতি চেয়ে আপিল বিভাগে লিভ টু আপিল দায়ের করে ইমাম গাজ্জালি ট্রাস্ট। গত ৪ মে এ লিভ টু আপিল খারিজ করে দেয়ায় এখন সরকারকে স্মৃতি সংগ্রহশালা স্থাপনে আর বাধা রইলো না।






মন্তব্য চালু নেই