মেইন ম্যেনু

৭০ দলীয় জোট আনছেন এরশাদ!

দেশের ইতিহাসে সর্ববৃহৎ একটি রাজনৈতিক জোট গঠিত হচ্ছে! সাবেক রাষ্ট্রপতি ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদের নেতৃত্বে রোববার (৭ মে) নতুন এই রাজনৈতিক জোটের আত্মপ্রকাশ ঘটছে।

তবে অবাক করা বিষয় হচ্ছে, যে ৭০ টি দল নিয়ে এই জোট এর ৬৯টি দলেরই নিবন্ধন নেই। জোটের একমাত্র নিবন্ধিত দলটি হচ্ছে এই জোটের উদ্যোক্তা জাতীয় পার্টি। সম্মিলিত জাতীয় জোট (ইউএনএ) নামক এই জোটভূক্ত দলগুলোর নিবন্ধন না থাকায় এ নিয়ে চারদিকে হাস্যরসের সৃষ্টি হচ্ছে।

জোট গঠনের বিষয়ে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের প্রেস অ্যান্ড পলিটিক্যাল সেক্রেটারি সুনীল শুভরায় জানান, রোববার (৭ মে) বেলা ১১টায় জাতীয় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে এক সংবাদ সম্মেলনে এই জোটের আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেবেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ।

তবে শুরু থেকেই জাতীয় পার্টি জোটভূক্ত হওয়ার জন্য প্রিন্সিপাল মাওলানা হাবিবুর রহমান-এর নেতৃত্বাধীন বাংলাদেশ খেলাফত মজলিস, আল্লামা আব্দুল লতিফ নেজামীর নেতৃত্বাধীন ইসলামী ঐক্যজোট, বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টকে অনুরোধ জানালেও তারা মজলিসে শুরার কথা বলে অপারগতা জানান।

জাতীয় পার্টির সূত্র জানায়, এ বছরের ৩০ মার্চ জাতীয় প্রেসক্লাবে জাতীয় পার্টির নেতৃত্বাধীন জোটে সে সময় ৩৪টি দল জোটভুক্ত হয়েছিল। নতুন করে লেবার পার্টির একাংশের চেয়ারম্যান সেকেন্দার আলী মনির নেতৃত্বাধীন বাংলাদেশ জাতীয় জোট- বিএনএ এর ২১ রাজনৈতিক দল ও সাংবাদিক সালাম মাহমুদ-এর নেতৃত্বাধীন ১৫ দলীয় যুক্তফ্রন্টও ৭ মে এরশাদের নেতৃত্বাধীন জোটে যোগ দেবেন। এতে জোটের সদস্য দল হবে ৭০টি। নতুন জোটের নামকরণ করা হচ্ছে সম্মিলিত জাতীয় জোট- ইউএনএ।






মন্তব্য চালু নেই