মেইন ম্যেনু

‘৫ জানুয়ারির নির্বাচনের ব্যাপারে আমেরিকার অবস্থান সবারই জানা’

বাংলাদেশের ৫ জানুয়ারির নির্বাচনের ব্যাপারে আমেরিকার অবস্থানের কথা সবারই জানা বলে মন্তব্য করেছেন দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র জেন পাসাকি।

১২ নভেম্বর মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নিয়মিত ব্রিফিংয়ে বাংলাদেশের একটি জাতীয় দৈনিকের যুক্তরাষ্ট্র প্রতিনিধি কাউসার মুমিনের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেছেন, “গত জানুয়ারিতে যে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে বা গণতন্ত্র নিয়ে আমাদের যে উদ্বেগ, তা সবাই জানেন এবং আমরা প্রায়ই তা বলে আসছি। এ বছরের শুরুর দিকে আমরা নির্বাচনের ব্যাপারে একটি বিবৃতি দিয়েছিলাম, যেখানে আমাদের দৃষ্টিভঙ্গি তুলে ধরা হয়েছে।”

তিনি বলেন, “বাংলাদেশের সরকার ও বিরোধীদলগুলোকে একটি সংলাপে বসার জন্য আমরা উৎসাহিত করেছিলাম, যেন জনগণের মতামত দেয়ার একটি উপায় তারা খুঁজে বের করতে পারেন এবং অন্যরা তা শ্রদ্ধা করতে পারেন। আমরা উস্কানিমূলক সহিংসতার বিরুদ্ধে কথা বলেছি। এনজিওসমূহ ও গণমাধ্যমের স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপের বিপক্ষে কথা বলেছি এবং এগুলো আমরা নিয়মিতই করে থাকি। আমরা এটা অব্যাহত রাখব, যতদিন পর্যন্ত আমরা তা ন্যায্য বলে বোধ করব।”

জেন পাসাকি বলেন, বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্কের ব্যাপারে যুক্তরাষ্ট্র অঙ্গীকারবদ্ধ। বিশ্বের সপ্তম বৃহত্তম জনসংখ্যা নিয়ে মধ্যপন্থি, ধর্মনিরপেক্ষ মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ গণতান্ত্রিক এবং মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠতার বিচারে তৃতীয় দেশ হিসেবে বাংলাদেশের সাফল্য ওই অঞ্চল এবং তার বাইরেও ইতিবাচক ও দীর্ঘস্থায়ী প্রভাব রাখবে। যৌথ বিবৃতিতে বাংলাদেশ সরকার ও দেশটির জনগণের সঙ্গে আমাদের বৃহৎ পরিসরের সম্পর্কের বিষয়টি প্রতিফলিত হয়েছে।” সূত্র- ওয়েবসাইট






মন্তব্য চালু নেই