মেইন ম্যেনু

হান্নানের মৃত্যুদণ্ডের ‘দিন গণনা’ শুরু : কারা মহাপরিদর্শক

ব্রিটিশ হাইকমিশনার আনোয়ার চৌধুরীর ওপর গ্রেনেড হামলা ও তিনজনকে হত্যার দায়ে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত হরকাতুল জিহাদ (হুজি) নেতা মুফতি আবদুল হান্নানের মৃত্যুদণ্ডের ‘দিন গণনা’ শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছেন কারা মহাপরিদর্শক ব্রিগেডিয়ার ইফতেখার উদ্দীন।

তিনি বলেছেন, ‘মুফতি হান্নানের মৃত্যু পরোয়ানাসহ রায়ের কপি বুধবার আমরা পেয়েছি দাপ্তরিকভাবে। সেটা এখন জেল কোড অনুযায়ী কার্যকর করা হবে। বুধবারই আমরা তা পড়ে শুনিয়েছি এবং আমাদের দিন গণনা (ডেট কাউন্ট) শুরু হয়েছে।’

ইফতেখার উদ্দীন বলেন, ‘উনি যেহেতু জেলকোড অনুযায়ী প্রাণভিক্ষার (মার্সি পিটিশন) জন্য সাত দিন সময় পাবেন, সাত দিন সময় তাকে দেওয়া হয়েছে। সাত দিনের মধ্যে উনি জানাবেন মার্সি পিটিশন করবেন কি না, সেটা এ মুহূর্তে কিছু বলেননি।’

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে গাজীপুরের কাশিমপুর কারাগার কমপ্লেক্সে ৪৯তম কারারক্ষী ও মহিলা কারারক্ষী মৌলিক প্রশিক্ষণ কোর্সের নবনিয়োগপ্রাপ্তদের শপথগ্রহণ ও কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানে যোগ দিতে এসে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ সব কথা বলেন।

এ সময় অতিরিক্ত কারা মহাপরিদর্শক মো. ইকবাল হাসান, গাজীপুরের জেলা প্রশাসক এস এম আলম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. সুলাইমানসহ কারা কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

কাশিমপুর কারাগারের সিনিয়র জেল সুপার মো. মিজানুর রহমান সাংবাদিকদের জানান, বুধবার সকাল ১০টার দিকে ফাঁসির রিভিউ আবেদন খারিজের রায় মুফতি হান্নানকে পড়ে শোনানো হয়েছে।

তিনি বলেন, মুফতি হান্নানের সহযোগী এবং এ মামলার অপর আসামি শরীফ শাহেদুল বিপুলকে রায় শোনানো হলে তিনিও রাষ্ট্রপতির কাছে প্রাণভিক্ষা চাওয়ার ব্যাপারে মত দেন।






মন্তব্য চালু নেই