মেইন ম্যেনু

হাজারো মা-বোনের ইজ্জতের বিনিময়ে শহীদ দিবস!-এ মূর্খতার দায় কার?

‘হে অমর ২১ শে ফেব্রুয়ারি হাজারো মা-বোনের ইজ্জতের বিনিময়ে শহীদ দিবস আমি কি ভুলিতে পারি। শহীদ দিবস অমর হোক। সৌজন্যে ফিরোজ পাটোয়ারী। ২১ নম্বর ওয়ার্ড , আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ, যুবলীগ, শ্রমিক লীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, মহিলা লীগ।

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের একটি ওয়ার্ডের ব্যানারে এ লেখাগুলো রাতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে জনৈক ডা. সুব্রত ঘোষের পেজে পাওয়া যায়।

সুব্রত ঘোষ লিখেছেন ‘এ মূর্খতার দায়ভার কার।’ এ প্রতিবেদকের সঙ্গে আলাপকালে তিনি বলেন, ব্যানারটি একজনের ফেসবুক পেজে পেয়েছেন তিনি। এটি সত্যিই লেখা হয়েছে।’ আওয়ামী লীগের মতো ইতিহাস ও ঐতিহ্যের ধারক-বাহক দলের ব্যানারে এরকম ভুল তথ্যের লেখা যদি সত্যিই হয়ে থাকে তবে তা দলের জন্য খুবই দুঃখজনক বলে ওই চিকিৎসক মন্তব্য করেন।

আবু রায়হান মিকাঈল নামে এক গণমাধ্যম কর্মী তার ফেসবুক ওয়ালে লিখেছেন- ‘কোনটি ভাষা দিবসের ইতিহাস আর কোনটি আমাদের মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস সেটাই জানেন না, আবার হয়েছেন নেতা। মাননীয় মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের-এর একটা কথা আজ আমার মনে পড়ে গেল। তিনি গত ১১ ফেব্রুয়ারি এক সমাবেশে বলেছিলেন- “আওয়ামী লীগে কর্মীর চেয়ে নেতা বেড়ে যাচ্ছে। কর্মীরা নেতা হয়ে যাচ্ছে। এটা দলের জন্য ভালো লক্ষণ নয়। তাই আমরা নেতা নয়, কর্মী চাই। কারণ বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা শেখ হাসিনা কর্মীবান্ধব রাজনীতি করেন।”

মাননীয় মন্ত্রীর সেই কথা ১০ দিন যেতে না যেতেই বাস্তবে প্রতিফলিত হয়ে গেল। ব্যানারে উল্লেখিত ফিরোজ পাটোয়ারী তিনি কি জানেন না হাজারো মা-বোনের ইজ্জতের বিনিময়ে শহীদ দিবস নয়, আমরা মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস পেয়েছি। আমাদের গৌরবোজ্জ্বল ইতিহাস অজ্ঞাত ব্যক্তিরা কিভাবে নেতা সাজে আমার বোধগম্য নয়।’






মন্তব্য চালু নেই