মেইন ম্যেনু

স্কুল ছাত্রীকে রাতভর গণধর্ষণ

ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার সাতৈর ইউনিয়নের কাদিরদী দ্বিমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণীর এক ছাত্রকে রাতভর পালাক্রমে গণধর্ষণের শিকার হয়েছে।

গত শনিবার দুইজনের নাম উল্লেখ পূর্বক এবং অজ্ঞাত আরও দুই যুবকের নাম দিয়ে ছাত্রীর পিতা বাদি হয়ে বোয়ালমারী থানায় ধর্ষণ মামলা দায়ের করেছেন, মামলা নং-১২। এ ঘটনায় এজাহারভূক্ত দুই প্রধান আসামী শহিদুল ও লাভলুকে এলাকাবাসি শনিবার আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে।

এলাকাবাসি সুত্রে জানা যায়, গত ১৬ ডিসেম্বর মঙ্গলবার সকাল ১১টার দিকে ওই ছাত্রী কাদিরদী বাজার হতে পাশের মধুখালী উপজেলার জফরাকান্দি গ্রামে তার খালা বাড়ি যাওয়ার উদ্যেশ্যে অটোরিক্সায় রওনা দেয়। কিছুদূর যাওয়ার পরে জাহাপুর ইউনিয়নের ইলিয়াছ শেখের ছেলে অটোচালক শহিদুল (১৯) কাদিরদী গ্রামের মেহের ব্যাপারির ছেলে মো. লাভলুসহ (২১) আরও দুই যুবককে তার অটোতে তুলে নেয়। এ সময় ওই ছাত্রী ভয়ে চিৎকার করলে তার হাত মুখ বেঁধে চতর গ্রামের একটি পরিত্যক্ত বাড়িতে নিয়ে আটকে রাখে। সেখানে ওই ছাত্রীর ইচ্ছার বিরুদ্ধে রাতভর পালাক্রমে সবাই তাকে ধর্ষণ করে।

পরেরদিন ১৭ ডিসেম্বর সকাল ১০টার দিকে অটোচালক শহিদুল ওই ছাত্রীটিকে কাদিরদী বাজারে নামিয়ে দিয়ে যায় এবং এ বিষয় কাউকে কিছু না জানানোর জন্য সে ভয়ভীতি দেখায়।

এদিকে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই মো. আবুল কালাম আজাদ আওয়ার নিউজ বিডিকে জানান, আসামি শহিদুল ও লাভলুকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অন্য আসামিদের দ্রুত গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। ধর্ষিত ছাত্রীর গত শনিবার মেডিকেল পরীক্ষা করা  হয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই