মেইন ম্যেনু

সুন্দরবনের মৃত বাঘের ছবি নিয়ে ফেসবুকে তোলপাড়

সুন্দরবনের শ্যালা নদীতে ট্যাংকার ডুবির ঘটনায় ছড়িয়ে পড়েছে তেল। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে সুন্দরবনের জীববৈচিত্র্য। বিপর্যয়ের মুখে পড়েছে কুমির, সাপ, ডলফিনসহ সুন্দরী গাছ। তবে এখন পর্যন্ত সাপ ছাড়া কোন মৃত প্রাণীর ছবি মিডিয়ায় প্রকাশ হয়নি। কিন্তু ফেসবুকে মৃত বাঘের ছবি নিয়ে তোলপাড় শুরু হয়েছে। ছবিতে দেখা গেছে, একটি বাঘ নদীর পানিতে মৃত অবস্থায় ভাসছে। তেলের প্রভাবে ওই বাঘের মৃত্যু হয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়েছে!!! এ নিয়ে ফেসবুকজুড়ে চলছে আলোচনা সমালোচনার ঝড়। কেউ বলছে এভাবেই সুন্দরবনের সব প্রাণী মারা যাবে। সুন্দরবন আর সুন্দর থাকবে না।

বাস্তবতা হলো সুন্দরবনের বাঘ কেন পানিতে নামতে যাবে? তেলের প্রভাবে বাঘের মৃত্যুর কোন কারণ নেই। কারণ যে পানিতে গন্ধ রয়েছে সে পানি সাধারণত বাঘ পান করে না। আর তেল লেগে বাঘের মৃত্যু হওয়ার কোন কারণ নেই। অন্যদিকে ট্যাংকার ডুবির পর থেকে সবার চোখ এখন সুন্দরবনে। শতশত ক্যামেরা এখন সুন্দরবনে চোখ রেখেছে। এতগুলো চোখ এড়িয়ে এভাবে একটি বাঘ মারা যাবে সেটা কোনভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়। আর একটি বাঘ মারা গেলে নিশ্চই এলাকবাসীও সেটা টের পেতো। কিংবা যিনি ছবিটি তুলেছেন তিনি অন্তত মিডিয়ার সামনে এনিয়ে কথা বলতেন। এছাড়া নৌ-পরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খানর সাংবাদিকদের বলেছেন, সুন্দরবনে সাপ ছাড়া অন্য কোন প্রাণী মারা যাওয়ার প্রমাণ পাওয়া যায়নি। বনবিভাগের কর্মকর্তারাও বাঘ মৃত্যুর বিষয়টি সম্পূর্ণ অস্বীকার করেছেন।






মন্তব্য চালু নেই