মেইন ম্যেনু

সারিয়াকান্দির ফুলবাড়ী শুকদহ খালের উপর বাঁশের ব্রীজ দিয়ে স্থানীয় বাসিন্দাদের ঝুঁকিপূর্ণভাবে চলাচল

বগুড়ার সারিয়াকান্দিতে ফুলবাড়ী শুকদহ খালের উপর বাঁশের ব্রীজ দিয়ে প্রতিদিন স্থানীয় বাসিন্দাগন ঝুঁকিপূর্ণভাবে চলাচল যে কোন সময় দুর্ঘটনা ঘটার আশংকা। স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, উপজেলার ফুলবাড়ী নয়াপাড়া ও নারচী নয়াপাড়া গ্রামে প্রায় ৮’শতাধিক পরিবার বসবাস করে। তাদের যাতায়াতের জন্য শুকদহ খাল পারাপার হতে হয়। এজন্য স্থানীয় বাসিন্দারা পারাপারের সুবিধার্থে সম্মিলিত ভাবে চাঁদা দিয়ে কোন মতে একটি বাঁশের ব্রীজ নির্মাণ করেন। স্থানীয় বাসিন্দা নুরুল আমিন, বাশো, আবেদ আলী, বনিজ উদ্দিন, মোজাফ্ফর, আলতাফ কাজী, টুনু কাজী জানান, গ্রামবাসী নিজস্ব উদ্যোগে বাঁশের ব্রীজটি তৈরি করে কোন মতে যাতায়াত করা হয়। তাদের ছোট ছোট ছেলে মেয়েরা প্রতিদিন স্কুলে যাতায়াত করে। ঝুঁকিপূর্ণ এই বাঁশের ব্রীজ দিয়ে যাতায়াত করতে চাই না। তাই তাদের পড়াশুনার বেশ ক্ষতি হচ্ছে। এছাড়াও স্থানীয় কৃষকরা মাঠ হতে উৎপাদিত ফসল বাড়ীতে আনতে কষ্টসাধ্য হয়ে পড়ে। গ্রামবাসী জনস্বার্থে একটি পাকা ব্রীজ নির্মাণের দাবি জানান। এব্যাপারে ফুলবাড়ী ইউপি চেয়ারম্যান আনোয়ারুত তারিক মোহাম্মদ বলেন এলাকাবাসী উদ্যোগ নেওয়ায় শুকদহ খালের উপর একটি বাঁশের ব্রীজ তৈরি করতে তিনিও সহায়তা করেছেন। তবে ঐ বাঁশের ব্রীজ দিয়ে ঝুঁকি নিয়ে যাতায়াত করতে হয়। তাই জরুরী ভিত্তিতে পাকা ব্রীজ নির্মাণের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিকট দাবি জানান। উপজেলা প্রকৌশলী শাহ্ মোঃ শহিদুল হকের নিকট শুকদহ খালের উপর ব্রীজ নির্মাণের পরিকল্পনা আছে কি না জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, শুকদহ খালের উপর ব্রীজ নির্মাণের জন্য উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে অবগত করা হবে। বরাদ্দ সাপেক্ষে ব্রীজটি নির্মাণ করা যাবে।






মন্তব্য চালু নেই