মেইন ম্যেনু

সাত ট্রাকসহ ফেরি ডুবি, চলছে উদ্ধার কাজ

গোপালগঞ্জের কাশিয়ানীর মধুমতি নদীতে সাতটি ট্রাকসহ ডুবে যাওয়া ফেরিটি উদ্ধার কাজ চলছে।

বৃহস্পতিবার বিকেলে ফায়ার সার্ভিসের দুটি দল উদ্ধার কাজ শুরু করে। তবে ট্রাকসহ নিমজ্জিত ফেরিটি ঘাটে আনা সম্ভব হয়নি।

এর আগে সকালে গোপালগঞ্জ জেলা প্রশাসক মো. খলিলুর রহমান উপজেলার কালনা-শংকরপাশা ফেরি ঘাট পরিদর্শন করে উদ্ধার কাজের নির্দেশ দেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বৃহস্পতিবার রাত তিনটার পর মধুমতি নদী পারাপারের জন্য কাশিয়ানী উপজেলার কালনা-শংকরপাশা ফেরি ঘাটে ছয়টি মালামাল বোঝাই ট্রাক, একটি পিকআপ, তিনটি মাইক্রোবাস ফেরিটিতে ওঠে। সাড়ে তিনটার দিকে ফেরিটি অপর পাড়ে গিয়ে পল্টুনে দাঁড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে ডুবে যেতে শুরু করে।

তড়িঘড়ি করে মাইক্রোবাস তিনটি নামতে সক্ষম হলেও ধান, পোল্ট্রিফিড, স্যালাইন, লোহা বোঝাই ছয়টি ট্রাক ও একটি পিকআপসহ ফেরিটি পানির নিচে তলিয়ে যায়।

ট্রাক চালক মেছের আলী ও সুমন জানায়, হেলপার দিয়ে ফেরিটি চালানো হয়েছিলো। তছাড়া ফেরিটির ভেতরে প্রচুর পানি জমে ছিলো। এসব কারণে ফেরিটি দ্রুত ডুবে যায়। ফেরিতে থাকা লোকজন দ্রুত নেমে যায়। কেউ হতাহত হয়নি।

ফেরির ত্রুটির বিষয়টি স্বীকার করে এসডিই মো. মোজাম্মেল হক জানান, পানি নিষ্কাশনের জন্য ফেরিতে স্যালোমেশিন থাকলেও তা কাজে না লাগানোয় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

ইজারাদার সংশ্লিষ্ট মো. মুন্জুর হোসেন জানান, এক মাস আগে মেরামত করা হলেও কাজে গাফিলতি থাকায় ত্রুটি দেখা দেয়।



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই