মেইন ম্যেনু

শ্বেতা বসু প্রসাদের পাশে এবার প্রকাশ্যে দাঁড়ালেন দীপিকা পাড়ুকোন

নিজের পরিবার ও ব্যক্তিগত খরচ সামলাতে দেহ ব্যবসায় নামতে বাধ্য হন জাতীয় পুরষ্কার প্রাপ্ত নায়িকা শ্বেতা বসু প্রসাদ। তাঁকে ধরা হয় মুম্বইয়েরই এক হোটেলের মধুচক্রের আসর থেকে। সারা সমাজ জুড়ে শুরু হয় শ্বেতার নিন্দা, তাকে নিয়ে চর্চা। রুপোলি দুনিয়া নিয়ে মানুষ আবার না না ধরণের বক্তব্য নিজের মতো করে বলতে থাকেন। কিন্তু শেষে তাঁর পাশে এসে দাঁড়ায় বলিউডের বিগ বসেরা, যেমন কর্ণ জোহর, বিশাল ভরদ্বাজ, হনসল মেহতা থেকে কহানি ঘর ঘর কি-তে শ্বেতার অনস্ক্রিন মা সাক্ষী তনওয়ার। এবার এই তালিকায় যোগ হল আর একটি নাম, দীপিকা পাড়ুকোন।

‘ফাইন্ডিং ফ্যানি’র অভিনেত্রী দীপিকাকে যখন ‘মকড়ি’ খ্যাত অভিনেত্রী শ্বেতার কথা জিজ্ঞেস করা হয়, তখন তিনি প্রশ্ন না এড়িয়ে গিয়ে, প্রকাশ্যে তার পাশে এসে দাঁড়ায়। তাঁর স্পষ্ট বক্তব্য, যদি কেউ তার পরিবার ও নিজের ব্যক্তিগত খরচ চালাতে গিয়ে বাধ্য হয় এই পথ বাছতে, আর তার সামনে অন্য কোনও পথ খোলা না থাকে, তাহলে এক্ষেত্রে কোনও ভুলই নেই। তাই প্রকাশ্যে ডিপি শ্বেতাকে সমর্থন করেছেন।

দীপিকার কথায়, বহু লোক তার সমালোচনা করছে, কিন্তু কেউ ভাবছে না তার পরিবারকে বাঁচাতে সে এই পথ বেছে নিয়েছিল। এটাকে একটা স্ক্যান্ডাল হিসেবে না দেখে, সবাইয়ের তার পাশে এসে দাঁড়িয়ে, তাকে সমর্থন করা উচিত্ বলে মনে করেন দীপিকা। দীপিকার দাবি, যারা এই ব্যবসা চালাচ্ছে, যে ব্যবসায়ী সেখানে ছিল, তাদের দিকে কেন আঙুল উঠছে না।






মন্তব্য চালু নেই