মেইন ম্যেনু

শার্শায় ঝুঁকিপূর্ণ ভবনে চলছে প্রশাসনের কাজ

জসিম উদ্দীন, বেনাপোল (যশোর)॥ জীবনের ঝুঁকি নিয়ে পুরনো জরাজীর্ণ ভবনে কাজ করছেন যশোরের শার্শা উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। যে কোনো মুহুর্তে এখানে দুর্ঘটনা ঘটতে পারে বলে সংশ্লি¬ষ্টরা আশঙ্কা করছেন। উপজেলা এলজিইডি প্রকৌশলী কামরুজ্জামান সাংবাদিকদের জানান, ১৯৬৬ সালের ১৫ নভেম্বর উদ্বোধন করা হয় উপজেলা পরিষদের সম্প্রসারণ এই ভবনটি। ব্যবহার অনুপযোগী হয়ে পড়ায় এটি এখন পরিত্যক্ত ঘোষণা করা হয়েছে। ২০১৪ সালের মার্চে ঝুঁকিপূর্ণ জরাজীর্ণ ভবন অপসারণসহ চার তলা নতুন ভবন নির্মাণে ১শ’ ৬ কোটি টাকার দরপত্র চুড়ান্ত হলেও এখনও কাজ শুরু হয়নি বলে জানান এলজিইডি প্রকৌশলী। তিনি আরো বলেন “যশোর ডিসি অফিসে আটকে পড়া ভবন অপসারণ রিপোর্টসহ অফিস স্থান্তর ও গাছ কাটার কোনো নিদের্শনা সংশি-ষ্ট মন্ত্রণালয় থেকে না আসায় জরাজীর্ণ ভবনে অফিস করতে বাধ্য হচ্ছি” । উপজেলা হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা ইউনুস আলী জানান, উপজেলা অডিটরিয়ামসহ দোতলা ভবনে সরকারের পল¬ী উন্নয়ন, মৎস্য, সমবায়, এলজিইডি, কৃষি সম্প্রসারণসহ বিভিন্ন দপ্তরে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কাজ করছেন কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা। তিনি বলেন, “ভবনের ছাদ, কলাম ও দেওয়ালসহ সর্বত্র মারাত্মক ফাটল ধরেছে, খসে পড়ছে ছাদের অংশ ও পিলাষ্টার। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সুশান্ত কুমার তরফদার বলেন, দীর্ঘ দিন ধরে আমরা জরাজীর্ণ ভবনে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে অফিসিয়াল কাজ করে আসছি। উপজেলা পরিষদে যেকোনো মুহূর্তে দুর্ঘটনা ঘটে যেতে পারে।






মন্তব্য চালু নেই