মেইন ম্যেনু

লক্ষ্যবস্তু খুঁজে নেবে স্মার্ট বুলেট

অ্যাঞ্জেলিনা জোলির ওয়ান্টেড সিনেমার কথা ভাবুন। কীভাবে পিস্তল থেকে বেরিয়ে যাওয়া বুলেট স্পিন করে বাঁকা পথে গিয়ে আঘাত হানে! এটা এখন আর সিনেমার সিনেমাটিক দৃশ্য নয়, বাস্তব!

ছোড়ার পর মধ্যপথে প্রয়োজন মতো গতিপথ পরিবর্তন করবে এমন ‘স্মার্ট’ বুলেটের সফল পরীক্ষা চালিয়েছে মার্কিন সেনাবাহিনী। এর ফলে ঝড়োহাওয়া কিংবা ধুলিঝড়ের মতো বৈরী পরিবেশেও সেনাদের পক্ষে লক্ষ্যভেদ করা সম্ভব হবে।

সেনাবাহিনীর ডিফেন্স অ্যাডভান্স রিসার্চ প্রোজেক্ট এজেন্সি (ডারপা) সম্প্রতি এক্সট্রিম অ্যাকুরেসি টাস্কড অর্ডিনেন্স (এক্সাকটো) প্রকল্পের আওতায় এই বুলেটের পরীক্ষা শেষ করেছে। পয়েন্ট ৫০ ক্যালিবারের বুলেটটি তৈরি করেছে টেলিডাইন সাইন্টেফিক অ্যান্ড ইমেজিং নামের একটি প্রতিষ্ঠান। এই বুলেট দিনে ও রাতে সমানভাবে কার্যকর।

bullet02 লক্ষ্যবস্তু খুঁজে নেবে স্মার্ট বুলেট

এটি মূলত সেনাবাহিনীর স্নাইপারদের জন্য তৈরি করা হয়েছে। নির্দিষ্ট লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানতে গুলির সঙ্গে রিয়েলটাইম গাইডেন্স সিস্টেমের সমন্বয়ের মাধ্যমে এটি তৈরি করা হয়েছে। লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানার পথে কোনো অনাকাঙ্ক্ষিত বস্তু এলে এটি নিজেই গতিপথ পরিবর্তন করবে।

ডারপা এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, বর্তমান প্রযুক্তি ব্যবহার করে বৈরী পরিবেশে অর্থাৎ প্রচণ্ড বাতাস ও ধুলিঝড়ে কোনো চলন্ত লক্ষ্যবস্তুকে সঠিকভাবে আঘাত হানা রীতিমতো চ্যালেঞ্জিং। নির্ভুল ও দ্রুত লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানা স্নাইপারদের জন্য আসলে জটিল। কারণ লক্ষ্যবস্তুতে ঠিকমতো আঘাত করতে না পারলে পুরো ট্রুপের নিরাপত্ত ঝুঁকিতে পড়বে। একইসঙ্গে এটি তাদের উপস্থিতি ও সম্ভাব্য অবস্থান শত্রুদের জানিয়ে দেবে।

এ বুলেট স্নাইপারদের নির্ভুলতা ও কার্যকারিতা বাড়িয়ে ট্রুপের নিরাপত্তা নিশ্চিত করবে। আর এ প্রকল্পের উদ্দেশ্য হচ্ছে রাইফেলের নির্ভুলতার বৈপ্লবিক পরিবর্তন ও স্বল্প পাল্লার বুলেটকে নিয়ন্ত্রণ।






মন্তব্য চালু নেই