মেইন ম্যেনু

র‌্যাব ডেথ স্কোয়াড, পুনর্গঠন সম্ভব নয়

র‌্যাবকে (র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটেলিয়ন) ডেথ স্কোয়াড ও এর পুনর্গঠন সম্ভব নয় বলে মন্তব্য করেছে এইচআরডব্লিউ (হিউম্যান রাইটস ওয়াচ)।
সংস্থাটির এশিয়া বিষয়ক প্রধান ব্রাড অ্যাডামস বলেন, র‌্যাব একটি ডেথ স্কোয়াড যা পুনর্গঠন করা সম্ভব নয়।
তিনি আরও বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা র‌্যাবের নিপীড়নের ব্যাপারে জিরো টলারেন্সের কথা বলেছেন। কিন্তু র‌্যাবকে ভেঙ্গে দিতে সাহসী পদক্ষেপ না নিলে তার কথা ব্যর্থতায় পর্যবসিত হবে।’
সংস্থাটির ওয়েবসাইটে সোমবার প্রকাশিত ‘বাংলাদেশ: নো জাস্টিস ফর ওন্ডেড চাইল্ড’ শিরোনামে একটি প্রতিবেদনে এ কথা বলা হয়।
প্রতিবেদনে র‌্যাবকে ভেঙ্গে দেওয়ার আহ্বান জানানো হয়েছে। সম্প্রতি র‌্যাবের বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ডের ব্যাপারে ইউরোপীয় ইউনিয়নের সদস্যরা উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন বলেও উল্লেখ করা হয়েছে।
বলা হয়েছে, আওয়ামী লীগ বিরোধী দলে থাকা অবস্থায় ‘ক্রসফায়ার’ ও অন্যান্য হত্যাকাণ্ডের জন্য র‌্যাবকে ভেঙ্গে দেওয়ার কথা বললেও ক্ষমতায় আসার পর তারা এ ব্যাপারে পদক্ষেপ নিতে ব্যর্থ হয়েছে।
ওই প্রতিবেদনে র‌্যাবের হামলায় লিমনের পা হারানোর ঘটনার স্বাধীন তদন্ত ও অভিযুক্ত র‌্যাব কর্মকর্তার বিচারের আহ্বান জানানো হয়েছে।
ব্রাড অ্যাডামস বলেন, ‘এটা ভালো যে, বাংলাদেশ সরকার অবশেষে লিমনের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগের বিষয়টির ইতি টেনেছে।’
তিনি আরও বলেন, ‘বাংলাদেশ সরকারের উচিত লিমনকে গুলি করা র‌্যাব কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া। একই সঙ্গে যারা তার (লিমন) বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ তুলে বিচার প্রক্রিয়াকে ভুল পথে পরিচালিত করেছে তাদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেওয়া উচিত।’
প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কলেজছাত্র থাকা অবস্থায় ১৬ বছর বয়সী লিমন হোসেনকে ঝালকাঠির একটি গ্রামের মাঠ থেকে ২০১১ সালের ২৩ মার্চ আটক করে র‌্যাব। ওই সময় তার বিরুদ্ধে অপরাধের অভিযোগ তুলে গুলি করে র‌্যাব সদস্যরা। ওই ঘটনার চারদিন পর লিমনের জীবন রক্ষার্থে পা কেটে ফেলতে হয়। এর আরও ছয়মাস পর হাসপাতাল ছাড়েন লিমন।
এ ছাড়া চলতি বছর নারায়ণগঞ্জে সাত খুনের ঘটনায় র‌্যাবের জড়িতের বিষয়টিও তুলে ধরা হয়েছে।





মন্তব্য চালু নেই