মেইন ম্যেনু

রিভিউ আবেদন করবে সাঈদীর পরিবার

মানবতাবিরোধী অপরাধে সাঈদীর আমৃত্যু কারাদণ্ডাদেশের সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের রায়ের বিরুদ্ধে রিভিউ আবেদন করার কথা জানালেন তার পুত্র মাসুদ সাঈদী।

১৯৭১ সালে বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় মানবতাবিরোধী অপরাধ সংঘটনের দায়ে জামায়াতের নায়েবে আমির আল্লামা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর মৃত্যুদণ্ডের সাজা কমিয়ে আমৃত্যু কারাদণ্ড প্রদান করে বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ।

বুধবার রায় ঘোষণার পর এজলাশ থেকে বের হওয়ার সময় মাসুদ সাঈদী বাংলানিউজকে বলেন,‘আমরা ন্যায়বিচার পাইনি।আল্লামা সাঈদী সম্পূর্ণ নির্দোষ, সব কাগজপত্র দিয়ে আমরা সেটা প্রমাণ করার চেষ্টা করেছি। আমাদের বিশ্বাস আমরা তা প্রমাণ করতেও পেরেছি, কিন্তু কোর্ট থেকে যে রায় পেলাম তা কিভাবে হলো, তা বুঝতে পারছি না। সম্পূর্ণ রায় হাতে পাওয়ার পর আমরা রিভিউ করবো।

মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগ প্রমাণ হওয়ায় গত বছরের ২৮ ফেব্রুয়ারি সাঈদীর মৃত্যুদণ্ডাদেশ প্রদান করে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১।

ওই রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করে সাঈদীর পরিবার।

বুধবার সকালে প্রধান বিচারপতি মো. মোজাম্মেল হোসেনের নেতৃত্বাধীন সুপ্রিম কোর্টের ৫ সদস্যের আপিল বিভাগ মৃত্যুদণ্ডের সাজা কমিয়ে আমৃত্যু কারাদণ্ডের শাস্তি প্রদান করেন।

আপিল বিভাগের অন্য ৪ বিচারপতি হচ্ছেন, বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা, বিচারপতি আব্দুল ওয়াহহাব মিঞা, বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী ও বিচারপতি এএইচএম শামসুদ্দিন চৌধুরী।

বুধবার আপিল বিভাগের রায়ে সাঈদীর বিরুদ্ধে ৫টি অভিযোগ প্রমাণ হয়েছে। এর মধ্যে ৩টিতে (১০, ১৬ ও ১৯ নম্বর) সংখ্যাগরিষ্ঠতার ভিত্তিতে আমৃত্যু, একটিতে (৮ নম্বর) ১২ বছর ও অপর একটি অভিযোগে (৭ নম্বর) দেয়া হয়েছে ১০ বছরের কারাদণ্ড।






মন্তব্য চালু নেই