মেইন ম্যেনু

রায়ে জাতি কলঙ্কমুক্ত হলো

মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় জামায়াতের সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল এটিএম আজহারুল ইসলামের ফাঁসির আদেশের মাধ্যমে জাতি কলঙ্কমুক্ত হয়েছে বলে দাবি করেছেন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ।

মঙ্গলবার দুপুরে ধানমন্ডির আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন ও রায়ের তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় তিনি এ দাবি করেন।

তিনি বলেন, ‘আজহারকে আদালত ফাঁসি দেয়ায় জনগণের প্রত্যাশা পূরন হয়েছে। দেশবাসীর সঙ্গে এ রায়কে আওয়ামী লীগও স্বাগত জানায়।’

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে হাছান মাহমুদ বলেন, ‘আওয়ামী লীগ মিরপুরে ককটেলও ফাটায়নি, শিক্ষিকাকে হত্যাও করেনি। আসলে বিএনপি নেতা মির্জা ফখরুল ইসলাম এসব কথা বলেছেন। তিনি ‘একজন ভদ্রবেশী সিরিয়াল মিথ্যাচারী’।

তিনি বলেন, ‘বিএনপি হরতালের নামে নোয়াখালীতে একজন স্কুল শিক্ষিকাকে হত্যা করেছে। দেশের বিভিন্ন জায়গায় হরতালের নামে জনগণের ওপর হামলা চালিয়ে গাড়ি ভাঙচুর করেছে। অসংখ্য মানুষকে আহত করেছে।’

হাছান মাহমুদ বলেন, ‘বিএনপি অতীতের মতো হরতালের আগের দিন পেট্রোল বোমা নিক্ষেপ করে জীবন্ত মানুষকে অগ্নিদগ্ধ করেছিল। এর দায় শুধু ঘটনার সঙ্গে যারা সরাসরি যুক্ত ছিল তাদের একার নয়। নির্দেশদাতা হিসেবে বেগম খালেদা জিয়া, মির্জা ফখরুল ইসলাম ও বিএনপি-জামায়াতের নেতাদের ওপর এর দায় বর্তায়। জনগণ এই মানবতাবিরোধী নৃশংস কর্মকাণ্ডের নির্দেশদতাদেরও বিচার চায়।’

সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন, দলের স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. বদিউজ্জামান ডাবলু, দপ্তর সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ, উপ-প্রচার সম্পাদক অসীম কুমার উকিল, সাবেক প্রতিমন্ত্রী আব্দুল মান্নান খান প্রমুখ।






মন্তব্য চালু নেই