মেইন ম্যেনু

ভুয়া সাংবাদিক ধরতে পুলিশি অভিযান

রাজধানীতে ভুয়া সাংবাদিক ধরতে পুলিশি অভিযান অব্যাহত আছে। শনিবার রাতে অভিযান চালানো হয় দয়াগঞ্জ মোড়ে।

এসময় ‘প্রেস’ কিংবা ‘সংবাদিক’ ষ্টিকার যুক্ত বেশ কিছু মোটর সাইকেল ও গাড়ি পরীক্ষা করে ১৭ টি মামলা দেয়া হয়। আটক করা হয় ‘প্রেস’ লেখা দুটি মোটর সাইকেল, যেগুলোর কোন বৈধ কাগজ ছিল না।

রোবার ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) উপ-কমিশনার (মিডিয়া) মাসুদুর রহমান এ তথ্য জানান।

অভিযানে পুলিশের ওয়ারী জোনের ডিসি মোস্তাক আহমেদ, ডিএমপি’র উপ-কমিশনার (মিডিয়া) মাসুদুর রহমান, অপরাধ বিষয়ক সাংবাদিকদের সংগঠন ক্র্যাবের সভাপতি আক্তারুজ্জামান লাবলু উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার রাতে অভিযান চালানো হয় মিরপুরের শেওড়াপাড়া ও ১০ নম্বর গোল চত্বরে। ঐ অভিযানে ১৭ টি বিভিন্ন ধরনের গাড়ি ও মোটরসাইকেল আটক করা হয়। এর মধ্যে ‘প্রেস’ লেখা ৪টি মোটরসাইকেলের কোন কাগজ ছিল না। ঐদিন মামলা করা হয় ৩৩টি।

অভিযান প্রসঙ্গে ক্র্যাব সভাপতি আক্তারুজ্জামান লাবলু বলেন, ‘এক শ্রেণীর কার্ডধারী তথাকথিত সাংবাদিকদের জন্য পেশাদার সাংবাদিকদের সুনাম ক্ষুন্ন হচ্ছে। এই অবস্থায় ক্র্যাবের পক্ষ থেকে বিষয়টি পুলিশকে জানানো হলে তারা আমাদেরকে সহযোগিতা করতে বলেন। আমরাও পুলিশকে এই অভিযানে প্রত্যক্ষভাবে সহায়তা করছি।’

তিনি আরো বলেন, ‘‘অভিযানে যেসকল ভুয়া সাংবাদিকদের ধরা হচ্ছে তাদের কাছে বিভিন্ন অখ্যাত পত্রিকার কার্ড পাওয়া যাচ্ছে। মূলত এইসব কার্ডধারি সাংবাদিকরা ‘সাংবাদিক’ পরিচয় ব্যবহার করে মানুষকে ভয়ভীতি দেখিয়ে ব্ল্যাকমেইল করছে।’’

এসময় তিনি পত্রিকা ও অনলাইন নিউজপোর্টালের সম্পাদকসহ সংশ্লিষ্টদের এই পেশার সুনাম ধরে রাখতে যাচাই-বাছাই করে লোক নিয়োগ দিতে এবং যার তার হাতে পত্রিকার আইডি কার্ড তুলে না দিতে অনুরোধ জানান।






মন্তব্য চালু নেই