মেইন ম্যেনু

আলোচনা সভায় সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত

বিবি ও অর্থমন্ত্রণালয় কী করে?

ব্যাংকিং পর্ষদে কিছু সংখ্যক অপেশাদার ব্যক্তি থাকায় ব্যাংকের অর্থ লোপাট হচ্ছে বলে মনে করেন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য এবং আইন বিচার ও সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত। ব্যাংকের অর্থ লোপাট হওয়ার কথা উল্লেখ করে বাংলাদেশ ব্যাংক (বিবি) ও অর্থ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব নিয়েও প্রশ্ন তোলেন তিনি।

শুক্রবার দুপুরে রাজধানীর কাকরাইলে ইনিস্টিটিউশন অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স বাংলাদেশ মিলনায়তনে বঙ্গবন্ধু একাডেমী আয়োজিত চলমান রাজনীতি বিষয়ক এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

ব্যাংকিং খাতে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় ও কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানান আওয়ামী লীগের প্রবীণ এ নেতা।

রাষ্ট্রীয় ব্যাংক বেসিকে সাম্প্রতিক অর্থ কেলেঙ্কারির কথা উল্লেখ করে এ প্রতিষ্ঠানের অপসারিত চেয়ারম্যান ও এমডিসহ দোষী ব্যক্তিদের অবিলম্বে গ্রেপ্তার করার দাবি জানান সুরঞ্জিত। তিনি বলেন, ‘অভিযুক্তদের ব্যাংক হিসাব জব্দ এবং আইনের আওতায় আনাতে হবে।’

কেন্দ্রীয় ব্যাংককে আরও বেশি দায়িত্বশীল হওয়া এবং মনিটরিং ব্যবস্থা জোরদার করার আহ্বান জানান সুরঞ্জিত। তিনি বলেন, ‘কিছু দিন আগে সোনালী ব্যাংকে হলমার্ক কেলেঙ্কারি হয়েছে। আবার বেসিক ব্যাংকের হাজার কোটি টাকার অর্থ লোপাট হয়েছে। কেন্দ্রীয় ব্যাংক ও অর্থমন্ত্রণালয় কী দায়িত্ব পালন করে?’

তিনি ব্যাংকের আর্থিক শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে আইন অনুযায়ী কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানান।

গাজায় ইসরায়েলের মানবতাবিরোধী হামলার নিন্দা ও প্রতিবাদ করে সুরঞ্জিত বলেন, ‘এ জন্য সরকারের পক্ষ থেকে প্রতিবাদ জানানো হয়েছে। তিনি ইউক্রেনে মালয়েশিয়ার বিমান ভূপাতিত করার ঘটনারও তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ করেন।

সংগঠনের উপদেষ্টা হাজী মোহাম্মদ সেলিমের সভাপতিত্বে সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন সাম্যবাদী দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য হারুন চৌধুরী, জাসদ নেতা হুমায়ুন কবির, আওয়ামী লীগ নেতা মিনহাজ উদ্দিন মিন্টু, আলমগীর হোসেন ও একাডেমির সাংস্কৃতিক সম্পাদক শাহনাজ পারভীন প্রমুখ ।






মন্তব্য চালু নেই