মেইন ম্যেনু

বাতাস চালিত মোটরসাইকেলের উদ্ভাবক দুর্ঘটনায় নিহত

দেশের প্রথম বাতাস চালিত মোটরসাইকেলের উদ্ভাবক হবিগঞ্জের নুরুজ্জামান মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় মারা গেছেন।
রবিবার দুপুর ২টার দিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জের সোহাগপুর এলাকায় প্রাইভেটকার ও বালুভর্তি ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে চারজন নিহত হয়। নিহতদের মধ্যে নুরুজ্জামানও ছিলেন।
নিহত হাফেজ নুরুজ্জামান গত ৫ মার্চ বিশ্বে প্রথম কোনো ধরনের তেল-গ্যাস ছাড়াই ও শতভাগ পরিবেশ বান্ধব বাতাসে চালিত মোটরসাইকেল আবিষ্কার করে দেশ-বিদেশে তাক লাগিয়ে দেন। তার আবিষ্কৃত মোটরসাইকেলটি চালু করতে ব্যটারিরও প্রয়োজন হয় না।

মোটরসাইকেলটি চালাতে প্রতি কিলোমিটার খরচ হতো ৯১ পয়সা। দীর্ঘ ২ বছর চেষ্টার পর বাতাস চালিত মোটরসাইকেলটি উদ্ভাবন করেন হবিগঞ্জ সদর উপজেলার রিচি গ্রামের গরীব কৃষক সৈয়দ আলীর ছেলে হাফেজ মো. নুরুজ্জামান।

উদ্ভাবক চট্টগ্রাম শ্যামলী পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটের ছাত্র ছিল। তিনি ২০১১ সাল থেকে বাতাস চালিত মোটরসাইকেল তৈরির কাজ শুরু করে একটানা দুই বছর গবেষণার পর এটি তৈরি করেছিলেন। দীর্ঘ গবেষণায় তার চার লাখ টাকা ব্যয় হয়। মোটরসাইকেলটি কাঠ, লোহা, শিট দিয়ে তৈরি। নিহত নুরুজ্জামান প্রাইভেট কারযোগে ঢাকায় যাচ্ছিলেন। ঢাকায় গিয়ে একটি মোটর কোম্পানির সঙ্গে তার চুক্তি হওয়ার কথা ছিল।

এদিকে নুরুজ্জামানের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন স্থানীয় সংসদ সদস্য অ্যাড. মো. আবু জাহির, চেম্বার প্রেসিডেন্ট মোতাচ্ছিরুল ইসলাম, এক্সপ্রেস সম্পাদক মো. ফজলুর রহমানসহ শহরের বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ।






মন্তব্য চালু নেই