মেইন ম্যেনু

শাহবাগ মোড়ে যুবকের অবস্থান

পারিবারিক অশান্তির উৎস স্টার জলসা, স্টার প্লাস, জি বাংলা বন্ধ করা হোক!

কবিগুরু বলেছেন “যদি তোর ডাক শুনে কেউ না আসে… তবে একলা চল রে।” কবিগুরুর এই চরনের মত সাহস নিয়ে এক যুবক আজ শাহবাগের রাস্তার মোড়ে দাঁড়িয়ে গেলেন একাই। মাথায় বাংলাদেশের পতাকা, দু’হাতে দুটি প্ল্যাকার্ড। প্ল্যাকার্ডে লেখা “পারিবারিক অশান্তির উৎস স্টার জলসা, স্টার প্লাস, জি বাংলা বন্ধ করা হোক।”

এই চ্যানেলগুলো নিয়ে অনেক কিছু হয়েছে। চট্টগ্রামে বিসিকে মানববন্ধন থেকে শুরু করে হাইকোর্টে রিট পর্যন্ত হয়েছে কিন্তু কাজের কাজ কিছুই হয়নি। এই যুবকের একা দাঁড়িয়ে যাওয়াকে পথচারীরা বেশ উৎসাহ নিয়ে দেখেছেন। সবার চোখ ছিল তার দিকে নিবদ্ধ। আমাদের এক পাঠক জনাব Kazi Mukituzzaman ছবি দু’টা আমাদের পাঠিয়েছেন। ধন্যবাদ আপনাকে।

দেশের ভদ্র সমাজের পক্ষ থেকে জি বাংলা ও স্টার জলসার মত চ্যানেলগুলো বন্ধের দাবী আছে বহুদিনের। যদিও। কিন্তু এখন অনেকটা দেরী গেছে। এই ঈদে পাখি নামের একটি লেডিস ড্রেস নিয়ে আত্মহত্যা এবং তালাকের মতো বেশকিছু ঘটনা ঘটেছে।

জি বাংলা ও স্টার জলসার মত চ্যানেলগুলো বন্ধের দাবীতে বেশকিছু সোস্যাল মিডিয়া, অনলাইন পোর্টাল ও প্রিন্ট নিউজে সরকারের এ ব্যাপারে নির্লিপ্ত থাকার বেশ কড়া সমালোচনা হচ্ছে।

2

তবে বন্ধের ব্যাপারে এখন পর্যন্ত তথ্য মন্ত্রণালয় থেকে আনুষ্ঠানিক ভাবে এই ব্যাপারে কিছু জানা যায়নি। জি বাংলা ও স্টার জলসার মত চ্যানেলগুলো বন্ধের এই সংবাদটি সোশ্যাল মিডিয়াতে ব্যাপক আকারে প্রচার হওয়াতে সকলে আনন্দ-উচ্ছ্বাস প্রকাশ করতে দেখা যাচ্ছে তবে যারা আনন্দ-উচ্ছ্বাস প্রকাশ করছে তাঁরা প্রায় সকলেই পুরুষ।

একজন স্টার প্লাস, জি বাংলা ও স্টার জলসা টিভি’র শক্তপোক্ত এক ভক্তের কথা হয়, সেই ভক্তটি রাগান্বিত স্বরে তাঁর মন্তব্য প্রকাশ করতে গিয়ে বলেন ”আমাদের দেশের টিভি তে কি দেখায় যে আমরা দেখবো ? এমন কিছু যদি হয়েই থাকে তাহলে আমরা দরকার হলে ইন্টারনেট থেকে লাইভ এই সব টিভি দেখবো, দেখি আমাদের ঠ্যাকায় কে ?”

এই ব্যাপারে এখনো নীরবতা পালন করছে এই দেশের নারী ফেসবুক ইউজারেরা, তাঁরা এখনো বিশ্বাস করতে পারছে না তাঁদের প্রিয় টিভি চ্যানেল জি বাংলা, স্টার জলসা বন্ধ হতে পারে। যদি কোন কারণে এ চ্যানেলগুলো বন্ধ হয়ে যায়, এবং এ কারণে কিছু নারীর আত্মহত্যার মত সম্ভবনা থেকে যায় তাহলে কি হতে পারে? এ কঠিন প্রশ্নের জবাব সহজেই দিলেন এসব চ্যানেলে আসক্ত এক নারী। সহজভাবে বললেন, তখন ইউটিউরে দ্বারস্থ হবেন তিনি।

এই ছেলেটির আরো অনেক উদ্যোগ দেখলে আপনি চমকে যাবেন, হতশা কাটিয়ে উঠে চাইবেন তার সঙ্গে যেতে। আরো পড়ুনঃ এ কালের মুক্তিযোদ্ধা! কলেজ পড়ুয়া এক তরুন একাই দাঁড়িয়ে গেছে সবার হয়ে

1






মন্তব্য চালু নেই