মেইন ম্যেনু

নেশার টাকা না পেয়ে বাবা-মাকে কুপিয়ে হত্যা

পঞ্চগড় জেলা শহরের পুরাতন ক্যাম্প এলাকায় নেশার টাকা না দেওয়ায় বাবা-মাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেছেন মাদকাসক্ত এক ছেলে।
পঞ্চগড় সদর থানার ঠিক পেছনে রবিবার দুপুরে ১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় পুলিশের এসআইসহ কমপক্ষে ৬ জন আহত হয়েছেন। এর মধ্যে গুরুতর আহত তিনজনকে পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, পুরাতন ক্যাম্প এলাকার বাসিন্দা পঞ্চগড় সুগার মিলের অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মিজানুর রহমান (৬৫) ও তার স্ত্রী সুলতানা বেগম (৫০) দুপুরে খেতে বসেছিলেন। এ সময় মাদকাসক্ত ছেলে মঞ্জুরুল হাসান শান্ত (৩৫) ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাদের এলোপাথারি কুপিয়ে হত্যা করেন। মাদকের টাকা না দেওয়ায় তাদের হত্যা করা হয়েছে বলে পুলিশ ও এলাকাবাসীর ধারণা।
পঞ্চগড় থানার পেছনে হওয়ায় হত্যার সময় বাবা-মায়ের চিৎকারে পঞ্চগড় থানার এসআই আরিফ, এএসআই এনামুল হক, থানার গাড়িচালক মাহাবুবের স্ত্রী নাছিমা বেগম দুপুর ২টার দিকে ওই বাসায় গেলে শান্ত তাদেরও কুপিয়ে জখম করে।
পরে থানা থেকে অতিরিক্ত পুলিশ এসে শান্তকে আটক করে।
পুলিশ ও এলাকাবাসী তাৎক্ষণিক শান্তর বাবা-মাকে উদ্ধার করে পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।
সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মমিনুল ইসলাম জানান, থানার কাছেই ঘটনাটি ঘটায় দ্রুত পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। এ সময় পুলিশের এসআইসহ কমপক্ষে ৬ জন আহত হয়েছেন। ঘটনাস্থল থেকে ঘাতক শান্তকে আটক করা হয়েছে।
এদিকে বাবা-মাকে কুপিয়ে হত্যার খবর চারদিকে ছড়িয়ে পড়লে পঞ্চগড় থানা, আধুনিক সদর হাসপাতাল ও শান্তদের বাড়ির আশপাশে শত শত উৎসুক জনতা ভিড় করছে।






মন্তব্য চালু নেই