মেইন ম্যেনু

দ্বৈত জীবনে আটক বাংলাদেশের সমকামী সমাজ

বাংলাদেশে সমকামী এবং উভকামী নারী-পুরুষের ওপর চালানো একটি জরিপে বলা হচ্ছে যে দেশের মধ্যে তারা ভীতিকর পরিবেশে দ্বৈত জীবন যাপন করছেন।

সমকামীদের সংগঠন বয়েজ অফ বাংলাদেশ (বিওবি) এবং তাদের একটি ম্যাগাজিন রূপবানের উদ্যোগে সারাদেশে প্রায় ৬০০ সমকামী ও উভকামী পুরুষ ও নারীর ওপর চালানো নজিরবিহীন এই জরিপটির ফলাফল বৃহস্পতিবার ঢাকায় প্রকাশ করা হয়।

জরিপে অংশগ্রহণকারীদের সবার বয়স ছিল ১৮ বছরের ওপর।

বাংলাদেশের হিজড়া সম্প্রদায়কে এই জরিপে অন্তভূক্ত করা হয়নি।

জরিপের ফলাফলে বলা হয়েছে, সমকামীরা পরিবার ও সমাজের কাছে তাদের যৌনতার পরিচয় প্রকাশ করতে ভয় পাচ্ছেন।

তাদের আশঙ্কা, নিজেদের এই পরিচয় প্রকাশ হলে পরিবার থেকে তাদেরকে ত্যাজ্য করা হতে পারে এবং সমাজে তারা নানা ধরনের নিপীড়নের শিকার হতে পারেন।

এই জরিপের উদ্যোক্তারা জানান, এই জরিপের ৬৬% উত্তরদাতা জানান যে সম্পর্ক তৈরির ক্ষেত্রে তারা সমলিঙ্গ বিয়ে চান।

অন্যদিকে, ৩৩% উত্তরদাতা জানান, সামাজিক অনুশাসন ও ভ্রুকুটির কারণে তারা ভিন্ন লিঙ্গের মধ্যে বিয়েতেও রাজি।

জরিপে বলা হয়েছে ৫৯% উত্তরাদাতা জানিয়েছেন তারা সমাজজীবনে বৈষম্যের শিকার হয়েছেন।

৫২% জানিয়েছেন বৈষ্যম্য ও হেনস্তার মুখে তারা দেশ ত্যাগ করতে ইচ্ছুক।

বাংলাদেশে সমকামী এবং উভকামী মানুষের প্রকৃত সংখ্যা কত তা এখনো অজানা।

ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের জেমস পি গ্র্যান্ট স্কুল অফ পাবলিক হেলথের ডিন সাবিনা ফাইয রশীদ বলছেন, বাংলাদেশে গে এবং লেসবিয়ান জনগোষ্ঠীর প্রতি সমাজের মূল অংশের দৃষ্টিভঙ্গি আগের চেয়ে কিছুটা বদলেছে।

তিনি বলেন, এখন মানুষ অনেক খোলামেলাভাবে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করছেন।






মন্তব্য চালু নেই