মেইন ম্যেনু

দীপিকার স্লিম ফিগারের গোপন রহস্য

এই মুহূর্তে তাঁকে বলিউডের এক নম্বর নায়িকা বললেও অত্যুক্তি হবে না। একসময়ে র‌্যাম্পে ঝড় তোলার পর সিলভার স্ক্রিনে এসেও তাঁর ক্যারিশমা দেখিয়েছেন দীপিকা। শুধু অভিনয়ের জন্যেই নয়, তাঁর পারফেক্ট ফিগার ঈর্ষণীয় অনেকের কাছেই।

image_2499

কিন্তু একদিনে তো আর এমন চোখ ধাঁধানো ফিগার তৈরি করতে পারেননি তিনি। এর জন্যে একনিষ্ঠভাবে মেনে চলতে হয়েছে বিশেষ এক্সারসাইজ এবং ডায়েট রেজিম। এতে অবশ্য তাঁকে সাহায্য করেছেন তাঁর ব্যক্তিগত ফিটনেস ট্রেনার ইয়াসমিন করাচিওয়ালা। দীপিকাকে কীভাবে ট্রেইন করেন ইয়াসমিন? জেনে নিন…
দীপিকা প্রতিদিন সকালে ৬টার মধ্যে ঘুম থেকে উঠে পড়েন। এরপর সোজা চলে যান তাঁর বাগানে… খোলা আকাশের নীচেই যোগাসন এবং ফ্রি হ্যান্ড এক্সারসাইজ করতে সবথেকে বেশি পছন্দ করেন তিনি। যোগাসনের শেষে আধ ঘন্টা হাঁটা ইজ অ্যা মাস্ট। তবে দৌড়ানোটা এড়িয়েই যান তিনি। নিয়মিত জিমে যাওয়া থেকে পিলাটিস এবং ফ্রি হ্যান্ড এক্সারসাইজেই বেশি স্বচ্ছন্দ দীপিকা। তবে জিমে গেলে বেশি জোর দেন ওয়েট ট্রেনিংয়ে।
দীপিকার স্লিম ফিগারের গোপন রহস্য
নাচ করতেও তিনি খুবই পছন্দ করেন। আর তাই তো জিমে ওয়ার্কআউট বা পিলাটিস করতে ভালো না লাগলে তিনি মনের খুশিতে নাচেন। তাতেও খুবই উপকার হয় বলেই মানেন ইয়াসমিন এবং দীপিকা। তবে শহরের বাইরে থাকলে সাঁতার এবং যোগাসনের উপরেই ভরসা রাখেন তিনি।
আর ডায়েট? জানতে ইচ্ছে করছে আদৌ কিছু খান কি না তিনি! তাহলে বলব প্রথমেই মাথা থেকে এই ধারণা বের করে দিন যে না খেয়ে রোগা হওয়া যায়। বরং বাস্তবে হয় ঠিক তার উল্টোটাই। এবং ইয়াসমিনও তাই পরামর্শ দিয়েছেন তাঁর ক্লায়েন্টকে। দু’ঘন্টা অন্তর কিছু না কিছু খান দীপিকা। ব্রেকফাস্ট, লাঞ্চ, ইভিনিং স্ন্যাক্স এবং ডিনারের মাঝে দু’ঘণ্টা অন্তর ফল এবং ফ্রুট জুসের উপরেই ভরসা রাখেন দীপিকা। কী কী থাকে তাঁর ডায়েটে? জেনে নিন…
ব্রেকফাস্ট: ডিমের সাদা অংশ ২টি, লো ফ্যাট দুধ এক গ্লাস
লাঞ্চ: গ্রিলড ফিশ, সবজি
সন্ধ্যা: আমন্ড, চিনি ছাড়া কফি ১ কাপ
ডিনার: আমিষ বা ভারি খাবার রাতে একেবারেই খান না তিনি। সালাদ, হাতে গড়া রুটি এবং সবজি দিয়ে সারেন রাতের খাওয়া পর্ব।  তবে দক্ষিণ ভারতীয় হওয়ায় তিনি মাঝে মধ্যেই দোসা, উপমা এবং ইডলিও খান।





মন্তব্য চালু নেই