মেইন ম্যেনু

তিন প্রকল্পে ঋণ দিচ্ছে বিশ্বব্যাংক

দেশের প্রাথমিক শিক্ষার মানোন্নয়ন, দুর্যোগকালীন বহুমুখী আশ্রয়কেন্দ্র নির্মাণ এবং শিশুর পুষ্টি ও বুদ্ধিমত্তা বিকাশের লক্ষ্যে প্রায় ১ হাজার ৭৫ মিলিয়ন ডলার ঋণ সহায়তার অনুমোদন দিয়েছে বিশ্বব্যাংক। বুধবার বিশ্বব্যাংকের নির্বাহী পরিচালকমণ্ডলী চূড়ান্তভাবে এ তিন প্রকল্পের জন্য এ সহায়তা অনুমোদন করেছে বলে প্রতিষ্ঠানটির ঢাকা অফিস সূত্রে জানা গেছে।

বিশ্বব্যাংকের ঢাকা অফিসের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা জানান, প্রকল্প তিনটির মধ্যে প্রাথমিক শিক্ষার মানোন্নয়নে ৪০০ মিলিয়ন ডলার, দুর্যোগকালীন বহুমুখী আশ্রয় কেন্দ্র নির্মাণ প্রকল্পে ৩৭৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার এবং শিশুর পুষ্টি, বুদ্ধিমতা বিকাশ ও হতদরিদ্র মায়েদের সহায়তার জন্য ৩০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের এ ঋণ সহায়তা দেওয়া হচ্ছে। জানা গেছে, দেশের প্রাথমিক শিক্ষার মানোন্নয়নের জন্য দেওয়া সহয়তা অর্থের মাধ্যমে প্রাথমিক শিক্ষায় ভর্তির হার ৯৮ শতাংশ এবং প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনীর হার ৮০ শতাংশে উন্নীত করা এবং মেধাভিত্তিক শিক্ষক নিয়োগ ও শূন্যপদ পূরণের প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে।

একইসঙ্গে শিক্ষা বছরের প্রথম মাসেই ৯০ শতাংশ স্কুলে পাঠ্যবই বিতরণ নিশ্চিত করা হবে। দুর্যোগকালীন বহুমুখী আশ্রয়কেন্দ্র নির্মাণের ঋণ সহায়তায় নয়টি উপকূলীয় জেলায় ৫৫২টি নতুন বহুমুখী আশ্রয়কেন্দ্র নির্মাণ, বিদ্যমান ৪৫০টির সংস্কার ও উন্নয়ন করা হবে। পাশাপাশি আশ্রয়কেন্দ্রগুলোতে পৌঁছানোর জন্য যোগাযোগ ব্যবস্থা গড়ে তোলা হবে। শিশুর পুষ্টি ও বুদ্ধিমত্তা বিকাশের লক্ষ্যে দেওয়া ঋণের অর্থে অতিদরিদ্র জনগোষ্ঠীর ১০ শতাংশ অথবা দেশের সবচেয়ে দরিদ্র ৪২টি উপজেলার ২৭ লাখ মানুষ উপকৃত হবে।






মন্তব্য চালু নেই