মেইন ম্যেনু

তথ্যমন্ত্রীই তথ্য পাননি

তথ্য অধিকার আইন-২০০৯ অনুযায়ী তথ্য চেয়ে আবেদন করে তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনুও তথ্য পাননি।

মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর ব্রাক সেন্টারে ‘তথ্য অধিকার আইন-২০০৯ এর ৭- ধারা’ শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেওয়ার সময় মন্ত্রী এ কথা জানান। এমআরডিআই ও মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন এ সেমিনারের আয়োজন করে।

সেমিনারে ক্ষোভ প্রকাশ করে মন্ত্রী বলেন, ‘দেশি-বিদেশি টাকায় পরিচালিত সব প্রতিষ্ঠানকে তথ্য অধিকার আইন অনুসারে তথ্য প্রদান করতে হবে। আমি নিজেও হেফাজত ইস্যুতে একটি প্রতিষ্ঠানের কাছে তথ্য চেয়ে পাইনি।’

তথ্য অধিকার আইনের কিছু সীমাবদ্ধতা রয়েছে উল্লেখ করে ইনু বলেন, ‘গত পাঁচ বছরের অভিজ্ঞতার আলোকে কিছু সংশোধন আনা প্রয়োজন। সব আইন হালনাগাদ করা হয়, তথ্য অধিকার আইন-২০০৯ এর হালনাগাদের উদ্যোগ নেয়া হবে।’

সেমিনারে বক্তরা অভিযোগ করে বলেন, ‘বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠান তথ্য অধিকার আইন-২০০৯ এর ৭ ধারার অপব্যবহার করছে। তারা ধারা-৭ এর বিভিন্ন ধারার কথা উল্লেখ করে তথ্য দেয়া থেকে বিরত থাকছে।’

উল্লেখ্য, তথ্য অধিকার আইনের ৭ ধারায় বলা হয়, কতিপয় তথ্য প্রকাশ বা প্রদান বাধ্যতামূলক নয়। এগুলোর মধ্যে অন্যতম হলো, বাংলাদেশের নিরাপত্তা, অখণ্ডতা ও সার্বভৌমত্বের প্রতি হুমকি হতে পারে এমন তথ্য, বিদেশি সরকারের কাছ থেকে পাওয়া তথ্য, কোন ব্যক্তির বা শারীরিক নিরাপত্তা বিপদাপন্ন হতে পারে এমন তথ্য, আদালতে বিচারাধীন কোন বিষয়ে এবং যা প্রকাশে আদালত বা ট্রাইব্যুনালের নিষেজ্ঞা রয়েছে অথবা যা প্রকাশ আদালত অবমাননার শামিল হয় এমন তথ্য প্রকাশ করা যাবে না।’

সেমিনারে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- আইন সচিব আবু সালেহ শেখ মোহম্মাদ জহিরুল হক, প্রধান তথ্য কমিশনার মো. ফারুক, সাবেক তথ্য কমিশনার আবু তাহের, অধ্যাপক সাদেকা হালিম, তথ্য কমিশনার নেপাল চন্দ্র সরকার, এম আর আই ডি এর নির্বাহী পরিচালক হাসিবুর রহমান, মানুষের জন্য ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক শাহিন আনাম প্রমুখ।



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই