মেইন ম্যেনু

ঢাকায় এলে মোদির কাছে কী পাবেন মমতা?

হঠাৎ করেই ঢাকা সফরে রাজি হয়ে বিপুল আলোচনার জন্ম দিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। তিস্তা চুক্তি সম্পন্ন করবেন না, এমন আশ্বাসের পর তিনি বাংলাদেশে আসতে রাজি হয়েছেন বলে শুক্রবার সংবাদ প্রকাশ করে কলকাতাভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজার। আর শনিবার ইকোনমিক টাইমসের খবরে বলা হয়েছে রাজ্যে সহয়াতার আশ্বাসের ভিত্তিতে বাংলাদেশ সফরে রাজি হয়েছেন তিনি।

ইকোনমিক টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয়, সেচ অবকাঠামোসহ পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক খাতে অর্থ সহায়তা বরাদ্দ এবং শুষ্ক মৌসুমে বিশেষভাবে তিস্তার পানি ব্যবহার করতে দেয়ার আশ্বাসের ভিত্তিতে মমতাকে ঢাকায় আসতে রাজি করিয়েছেন মোদি। প্রতিবেদনে বলা হয়, মমতাকে ঢাকা সফরের ব্যাপারে রাজি করাতে গেল কয়েক মাস ধরে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুসমা স্বরাজ। আর সেইসঙ্গে সম্প্রতি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংয়ের কলকাতা সফরও এ ব্যাপারে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রেখেছে।

এদিকে শুক্রবারের আনন্দবাজার জানায়, ভারতীয় প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে মমতাকে আশ্বাস দেওয়া হয়েছে যে, তিনি ঢাকায় গিয়ে তিস্তা নিয়ে কোনও কথা বলবেন না। ওই চুক্তি নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী যখন একমত নন, তখন শুধু বাংলাদেশের কথায় তিনি চুক্তি করবেন, এটা হতেই পারে না। রাজনাথও এ দিন বলেন, এই সফরেই তিস্তা চুক্তি হয়ে যাবে এমন কথা তিনি বলতে চাননি। তিনি বলতে চেয়েছিলেন, দুই দেশের মধ্যে আলাপ আলোচনার মাধ্যমে অদূর ভবিষ্যতে এই চুক্তি হবে বলে তিনি আশাবাদী।

মমতার দাবি,তিনি তিস্তা চুক্তির বিরুদ্ধে নন। “কিন্তু উত্তরবঙ্গকে বঞ্চিত করে তো চুক্তি করা উচিত নয়।’’ মন্তব্য করেন তিনি।






মন্তব্য চালু নেই