মেইন ম্যেনু

নিয়ন্ত্রণে ফায়ার সার্ভিসের ১৪ ইউনিট

ডিগনিটি কারখানায় আগুন, ধসে পড়তে পারে ভবন

গাজীপুরের শ্রীপুরের গড়গড়িয়া মাস্টারবাড়ি এলাকায় ডিগনিটি পোশাক কারখানার আগুন এখনো নেভেনি। আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে ফায়ার সার্ভিসের ১৪টি ইউনিট। সাততলা ভবনটি ধসে পড়ার আশঙ্কা করছেন ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তারা।

টেক্সটাইল কারখানাটির তুলার গোডাউন থেকে রবিবার দুপুর ২টার দিকে আগুনের সূত্রপাত হয়। রাত ৮টায় শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত আগুন জ্বলছিল।

ফায়ার সার্ভিস এ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আলী আহম্মদ খান ঘটনাস্থলে উপস্থিত সাংবাদিকদের বলেন, সাততলা ভবনের পুরোটা স্টিলের ফ্রেমে তৈরি। আগুন লাগায় পুরো ভবনটি প্রচণ্ড উত্তপ্ত ও নরম হয়ে গেছে। তাপে ও চাপে ধসে পড়তে পারে ভবনটি।

তিনি আরও বলেন, ভবনটির শেষ পরিণতি আপনারাও বোঝেন, আমরাও বুঝি। এর পরও আমরা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।

আগুন লাগার বিষয়টি তদন্তে তিন সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটির প্রধান করা হয়েছে শ্রীপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাদেকুর রহমানকে। কমিটিকে সাত দিনের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে। অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ফায়ার সার্ভিস গাজীপুরের উপ-পরিচালক আক্তারুজ্জামান লিটন জানান, দুপুর আড়াইটার দিকে শ্রীপুর উপজেলার ডিগনিটি পোশাক কারখানার দোতলায় আগুনের সূত্রপাত হয়। ক্রমেই তা সাততলা ভবনের সপ্তম তলা পর্যন্ত ছড়িয়ে পড়ে।

তিনি আরও জানান, খবর পেয়ে গাজীপুর, কালিয়াকৈর, টঙ্গী, শ্রীপুর ও ভালুকা ফায়ার সার্ভিসের ১৪টি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রণের কাজে যোগ দেয়। এরই মধ্যে ওই কারখানার বিপুল পরিমাণ পোশাক তৈরির কাঁচামাল পুড়ে গেছে।

তাৎক্ষণিকভাবে আগুন লাগার প্রকৃত কারণ ও ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ জানাতে পারেনি ফায়ার সার্ভিস।






মন্তব্য চালু নেই