মেইন ম্যেনু

‘জামায়াতের আমির না হলে নিজামীর বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগই উঠত না’

জামায়াতের আমির মতিউর রহমান নিজামীর আইনজীবী অ্যাডভোকেট তাজুল ইসলাম বলেছেন, নিজামী জামায়াতের আমির না হলে তার বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগই উঠত না।

মঙ্গলবার দুপুরে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের ফটকের সামনে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, নিজামীর বিরুদ্ধে আনীত একটি অভিযোগও রাষ্ট্রপক্ষ সঠিকভাবে প্রমাণ করতে পারেনি। তারপরও তারা মৃত্যুদণ্ড চাচ্ছেন। মনে হয় তারা এটা বাংলালিংক দামে পেয়েছেন।

কথায় কথায় মৃত্যুদণ্ড চাওয়াটা রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবীদের ফ্যাশনে পরিণত হয়েছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

তাজুল দাবি করেন, আদালত যদি সবকিছু বিবেচনা করে রায় দেন তবে নিজামী বেকসুর খালাস পাবেন।

তিনি আরো বলেন, ‘আমরা জানতে পেরেছি নিজামীর বিরুদ্ধে আনীত ১৬ নম্বর অভিযোগটি প্রসিকিউশনের ছিল না। সেটি ছিল বেলজিয়াম থেকে পাঠানো।

নিজামীর বিরুদ্ধে ১৬ নম্বর অভিযোগ হচ্ছে “সারা দেশে ছাত্রসংঘ ও আলবদর বাহিনীর সদস্যরা পাকিস্তান সেনাবাহিনীর সহযোগী হিসেবে হত্যা, ধর্ষণ, অগ্নিসংযোগসহ মানবতাবিরোধী যে অপরাধ করেছে, তার দায় নিজামীর। কারণ, ছাত্রসংঘের সভাপতি ও আলবদর বাহিনীর প্রধান হিসেবে ওই সব কর্মকাণ্ডে পরিকল্পনাকারী ও উসকানিদাতা ছিলেন তিনি। ”

প্রসঙ্গত, আগামীকাল বুধবার নিজামীর মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলার রায় ঘোষণা করবেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১।






মন্তব্য চালু নেই