মেইন ম্যেনু

গরুর মাংস খাইনি, সাফাই কাজলের

বন্ধুদের সঙ্গে গরুর মাংস খাচ্ছেন অভিনেত্রী কাজল৷ এমন একটি ভিডিও নেট দুনিয়ায় ছড়িয়ে পড়তেই হৈ চৈ পড়ে যায়৷ যেখানে গরু নিয়ে এত কথা, গোহত্যার অভিযোগে মানুষ পর্যন্ত হত্যা করা হচ্ছে, সেখানে কাজল গরুর মাংস খাচ্ছেন! বিষয়টা নিয়ে ছি ছি পড়ে যায়। অনেকে তো সোশ্যাল মিডিয়ায় কাজলকে গঙ্গাজলে ধুয়ে তোলার চেষ্টা করেছেন। পরিস্থিতি ক্রমশ ঘোলাটে হচ্ছিল। অবশেষে বাধ্য হয়ে নিজের অবস্থান পরিস্কার করলেন অভিনেত্রী। জানালেন, তিনি গরুর মাংস খাননি।

যে ভিডিও ছড়িয়েছিল সেটি ছিল একটি সেলফি ভিডিও৷ বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা ও খানাপিনার মুহূর্ত নিজেই ক্যামেরাবন্দী করেছিলেন অভিনেত্রী৷ পোস্টও করেছিলেন সোশ্যাল মিডিয়ায়৷ প্রচারিত হচ্ছিল যে, খাবার টেবিলে ছিল গরুর মাংসও৷

এ নিয়েই সমালোচনা ও রসিকতার মুখে পড়তে হয় কাজলকে৷ নেটদুনিয়ায় ভাইরাল হয় সে ভিডিও৷ চাপের মুখে পড়ে আগেই ভিডিওটি ডিলিট করেছিলেন, এবার তার পাল্টা জবাবও দিলেন কাজল৷ নিজের টুইটার হ্যান্ডেলে তিনি জানিয়েছেন, গরুর মাংস তিনি খাননি৷ লাঞ্চে গরুর মাংস ছিল বলে যা প্রচারিত হয়েছে তা আসলে একটি ভুল ধারণা৷ অভিনেত্রীর বক্তব্য, ভিডিওতে যে মাংস দেখা গিয়েছিল তা আসলে মহিষের এবং এই মাংস খাওয়া আইনত স্বীকৃত৷ ফলে তাতে দোষের কিছু নেই৷

কিন্তু কেন গরুর মাংস খাননি বলে সাফাই দিতে হল? কাজলের জবাব, এর সঙ্গে অনেকের ধর্মীয় ভাবাবেগ জড়িয়ে আছে৷ বিষয়টি যেহেতু স্পর্শকাতর তাই অনেকে এ দৃশ্য দেখে আহত হতে পারেন৷ কিন্তু সেরকম কোনও উদ্দেশ্য তার ছিল না৷ তাই তিনি তার অবস্থান পরিষ্কার করে দিলেন৷

দেশের বিভিন্ন রাজ্যে ইতোমধ্যে নিষিদ্ধ হয়েছে গরুর মাংস৷ এ নিয়ে খুন-খারাবির ঘটনাও ঘটে গেছে। সম্প্রতি গরু জবাই করতে পারে এমন ধারণা থেকে দুই মুসলিম যুবককে হত্যা করা হয়৷ সব মিলিয়ে যা পরিস্থিতি, তাতে এর জেরে কোনো অপ্রীতিকর অবস্থায় পড়তে চান না অভিনেত্রী।






মন্তব্য চালু নেই