মেইন ম্যেনু

এবারের জনপ্রতি ফিতরা ৬৫ টাকা

এবারের ফিতরা মাথাপিছু সর্বনিম্ন ৬৫ টাকা ও সর্বোচ্চ ২ হাজার টাকা। আজ সোমবার বেলা সাড়ে ১১টায় ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সভাকক্ষে সাদকাতুল ফিতর কমিটির ফিতরা নির্ধারণী সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়। এ সভায় ১৪৩৫ হিজরি সনের সাদকাতুল ফিতরা’র হার নির্ধারণ করা হয়েছে। এতে সভাপতিত্ব করেন কমিটির আহ্বায়ক জাতীয় মসজিদের খতীব মোহাম্মদ সালাহ উদ্দীন। সভায় ঢাকার বিশিষ্ট আলেমগণের সমন্বয়ে গঠিত কমিটির অন্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।
ইসলাম ধর্মের বিশ্বাস অনুযায়ী, প্রত্যেক সামর্থ্যবান মুসলমানের জন্য ফিতরা আদায় করা ওয়াজিব। নাবালক ছেলেমেয়ের পক্ষ থেকে বাবাকে এ ফিতরা দিতে হয়। আর তা দিতে হয় ঈদুল ফিতরের নামাজের আগেই। গত বছর সর্বনিম্ন ফিতরা ধরা হয়েছিল জনপ্রতি ৬৬ টাকা; তার আগের বছর ৫৫ টাকা।
জানা যায়, গম বা আটার বাজারমূল্য হিসাব করে এবার সর্বনিম্ন ফিতরা নির্ধারণ করা হয়েছে জনপ্রতি ৬৫ টাকা। গম বা আটার ১ কেজি ৬৫০ গ্রাম অথবা খেঁজুর, কিসমিস বা পনির- যে কোনো একটি পণ্যের ৩ কেজি ৩০০ গ্রামের বাজার মূল্য ফিতরা হিসেবে গরিবদের মধ্যে বিতরণ করা যায়। বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের খতিব মাওলানা মোহাম্মদ সালাহ উদ্দিন জানান, এসব পণ্যের বাজার মূল্য হিসাব করে এবার ফিতরা নির্ধারণ করা হয়েছে সর্বনিম্ন ৬৫ টাকা থেকে ২ হাজার টাকা।






মন্তব্য চালু নেই