মেইন ম্যেনু

আসছে নতুন “পেপসি ট্রু”

ওজন অনিয়ন্ত্রিতভাবে বাড়ানোর জন্য কোক-পেপসি এসব কোমল পানীয়ের বেশ কুখ্যাতি আছে। ইতোমধ্যেই কোকাকোলা নিয়ে এসেছে “কোক লাইফ” যাতে ক্যালোরির পরিমাণ অনেক কম। এর সাথে তাল মেলাতেই বুঝি পেপসিও নিলে এলো সবুজ ক্যানে “পেপসি ট্রু”।

পেপসি ট্রু প্রথমে শুধুই বিক্রয় করা হবে অ্যামাজনে। আর তা শুরু হবে এই মাসের শেষ দিকে। ইদানিং ডায়েট কোলা, ডায়েট পেপসি জাতীয় পানীয়ের আবেদন কমতে শুরু করেছে মানুষের মাঝে। এ কারণেই কোক নিয়ে এসেছে মাঝামাঝি ক্যালোরির কোক লাইফ এবং পেপসি নিয়ে এসেছে পেপসি ট্রু।

একে মিষ্টি করার জন্য ব্যবহার করে হয়েছে প্রাকৃতিক সুটনার স্টেভিয়া এবং চিনির একটি মিশ্রণ। ৭.৫ আউন্সের এই ক্যানে রয়েছে ৬০ ক্যালোরি যা স্বাভাবিক পেপসির তুলনায় ৩০ গুণ কম।

কোমল পানীয়তে থাকা উচ্চমাত্রার ক্যালরি এবং আর্টিফিশিয়াল সুইটনারের কারণে মানুষের মাঝে মুটিয়ে যাবার প্রবণতা অনেক বেড়ে যাচ্ছিলো আর বিরক্ত হয়ে উঠছিলেন ক্রেতারা। ফলে বর্তমানে স্টেভিয়ার ওপরে নির্ভরশীল হয়ে পড়ছেন।

স্টেভিয়া মূলত জাপানে ১৯৭০ সাল থেকে প্রচলিত এবং পশ্চিমা বিশ্বে তা জনপ্রিয় হয়ে ওঠে ২০০৮ সালের দিকে। স্টেভিয়াতে প্রায় কোন ক্যালোরিই নেই। তবে এতে একটু তেতো ভাব আছে যা অনেকে টের পেতে পারেন।






মন্তব্য চালু নেই