মেইন ম্যেনু

আশুলিয়ায় পৃথক স্থানে ৮ ও ৫ বছরের শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক : সাভারের আশুলিয়ায় সাড়ে আট বছরের একটি শিশু শিক্ষার্থী ধর্ষিত হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

শনিবার সকালে আশুলিয়া ইউনিয়নের কুমকুমারী এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

এলাকাবাসী জানায়, আশুলিয়ার কুমকুমারী এলাকার রাজমিস্ত্রি মিজানুর রহমানের মেয়ে দোসাইদ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণীর শিশু শিক্ষার্থী নাবিলা আক্তার মারিয়া বাড়ির পাশে সকালে খেলা করছিলো। এ সময় ওই শিশুকে চকলেট কিনে দেওয়ার কথা বলে প্রতিবেশী অভিযুক্ত হামেদ আলী শিকদার (৬০) তাকে তার বাড়িতে নিয়ে একটি কক্ষে ধর্ষণের চেষ্টা চালায়। এ সময় শিশুটি চিৎকার দিলে তাকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে ওই ব্যক্তি পালিয়ে যায়। শিশুটির সারা শরীরে আঘাতের চিহৃ রয়েছে। পরে স্থানীয়রা শিশুটিকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য সাভারের একটি হাসপাতালে ভর্তি করে।

অপরদিকে গেল বুধবার রাতে আশুলিয়ার নিশ্চিন্তপুরে মীম নামের ৫ বছরের অপর এক কন্যা শিশু ধর্ষনের শিকার হয়েছে বলে গেল অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি স্থানীয়ভাবে ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা চালালে ধর্ষিত শিশুটির পিতা নাছির উদ্দিন স্থানীয় রায় মেনে না নিয়ে বৃহস্পতিবার থানায় অভিযোগ জানালে প্রাথমিক তদন্ত শেষে রাতে মামলাটি লিপিবদ্ধ হয়।

শনিবার সকালে আশুলিয়া থানা পুলিশ মীমের শারীরিক অবস্থা পরীক্ষার জন্য ঢাকায় পাঠান।

ধর্ষিতা শিশু মীমের পিতা নাছির জানান,আশুলিয়ার নিশ্চিন্তপুর এলাকার কবিরের বাড়ীতে স্বপরিবারে ভাড়া থাকতো সে। ঘটনার পর থেকে নানাভাবে বিষয়টি ধামাচাপা দিতে প্রভাবশালী একটি মহল তাকে ভয়ভীতি দেখাচ্ছে ।

এদিকে এ ঘটনার পর থেকে কবিরের ম্যানেজার ধর্ষক সিরাজ মিয়া(৫০)পলাতক রয়েছে বলে আশুলিয়া থানা পুলিশ জানিয়েছে।
এ বিষয়ে আশুলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহসিনুল কাদির জানান শিশু ধর্ষণের চেষ্টার বিষয়টি তিনি শুনেছেন অভিযোগ পেলে তদন্ত করে দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।






মন্তব্য চালু নেই