মেইন ম্যেনু

হেলিকপ্টার থেকে হাওরের কৃষকদের দুর্দশা দেখলেন রাষ্ট্রপতি

কিশোরগঞ্জ ও সুনামগঞ্জ জেলার ক্ষতিগ্রস্ত হাওর এলাকা পরিদর্শন করেছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। আজ রোববার তিনদিনের সফরের শুরুতে রাষ্ট্রপতি কিশোরগঞ্জের মিঠামইন উপজেলার হাওর এলাকা পরিদর্শন করেছেন।

মিঠামইনে নামার আগে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ হেলিকপ্টারে বসে উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢল ও অসময়ের টানা বৃষ্টিপাতে সৃষ্ট বন্যায় ডুবে যাওয়া বিস্তীর্ণ ফসলের জমি পরিদর্শন করেন।

জেলা কৃষি বিভাগের মতে, অকাল বন্যায় কিশোরগঞ্জের তিন হাওর উপজেলা মিঠামইন, ইটনা ও অষ্টগ্রামে প্রায় ৪০ হাজার হেক্টর জমির আধা-পাকা বোরো ফসল পুরোপুরি তলিয়ে গেছে। তবে কৃষকদের দাবি এর পরিমাণ আরো অনেক বেশি। কিশোরগঞ্জ ছাড়াও সুনামগঞ্জ, সিলেট, মৌলভীবাজার, হবিগঞ্জ, নেত্রকোনা ও ব্রাক্ষণবাড়িয়ার বেশির ভাগ জমির বোরো ধান তলিয়ে গেছে।

আজ দুপুর ২টায় নিজ এলাকা মিঠামইনে অবতরণের পর রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ জেলা পরিষদের ডাকবাংলোয় যান এবং সেখানে তাঁকে গার্ড অব অনার প্রদান করা হয়। পরে মিঠামইন উপজেলার জেলা পরিষদ মিলনায়তনে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি, মুক্তিযোদ্ধাসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষের সঙ্গে মত বিনিময় করেন।

সফরের দ্বিতীয় দিন আগামীকাল সোমবার রাষ্ট্রপতি দুপুর ১২টায় মিঠামইন থেকে সুনামগঞ্জের উদ্দেশ্যে হেলিকপ্টারযোগে যাত্রা করবেন এবং সুনামগঞ্জ অবতরণের আগে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হাওর এলাকা পরিদর্শন করবেন। সুনামগঞ্জে সন্ধ্যা ৭টায় তিনি জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, গণ্যমান্য ব্যক্তি, শিক্ষাবিদ ও সরকারি কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় অংশ নেবেন। আগামী মঙ্গলবার রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ দুপুর সাড়ে ১২টায় হেলিকপ্টারযোগে ঢাকার উদ্দেশ্যে যাত্রা করবেন।






মন্তব্য চালু নেই