মেইন ম্যেনু

জিয়াউর রহমান হত্যাকাণ্ড

হাসিনাকে রিমান্ডে নিলেই আসল রহস্য বের হবে : তারেক রহমান

‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে রিমান্ডে নিলেই বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা ও প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান হত্যাকাণ্ডের আসল রহস্য বের হবে’ বলে দাবি করেছেন দলটির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান।

তিনি বলেন, ‘জিয়াউর রহমান হত্যার বিষয়ে জানতেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। হাসিনা দেশে ফেরার মাত্র ১৭ দিন পরই কেন জিয়া খুন হলেন। হাসিনা যদি কিছু না জানবেন, তাহলে কেন তিনি বোরকা পরে দেশ ছেড়ে পালিয়ে যাচ্ছিলেন।’

মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুরের পুত্রা ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারে বুধবার সন্ধ্যায় এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন তিনি।

জিয়াউর রহমানের ৩৩তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে মালয়েশিয়া বিএনপি এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

‘পিলখানা হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ফাঁসি হওয়া উচিত’ বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

তারেক রহমান বলেন, ‘মাত্র কয়েক দিন আগে শীতলক্ষ্যা নদী থেকে বেশ কয়েকজন মানুষের লাশ উদ্ধার হলো। এরা কাদের লোক? এরা সবাই আওয়ামী লীগের লোক। অথচ তাদের হত্যা করা হলো।’

তিনি বলেন, ‘আওয়ামী লীগ নিজেদের প্রয়োজনে এমন কোনো কাজ নেই- যা তারা করতে পারে না। এরা নিজেদের প্রয়োজনে নিজ দলের লোকদেরও হত্যা করতে দ্বিধা করে না। বিরোধী দল তো বটেই।’

তারেক রহমান নেতাকর্মীদের উদ্দেশ করে বলেন, ‘ভালো আছি, আবার ভালোও নেই। আপনারা এখানে ভালো আছেন। কারণ, এখানে হাসিনা নেই।’

তারেক বলেন, ‘আওয়ামী লীগের নামটাই তো ঠিক নেই। আওয়ামী শব্দটি উর্দু। যার অর্থ জাতি। লীগ শব্দটি ইংরেজি, যার অর্থ পার্টি বা দল। অর্থাৎ আওয়ামী লীগের অর্থ জাতি পার্টি। এতদিনে তারা তাদের দলের নামও পরিবর্তন করতে পারেনি।’

পুত্রা ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারে তারেক রহমান যখন পৌঁছান তখন নেতাকর্মীরা স্লোগান দিতে থাকেন। তিনি হাত নেড়ে তাদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন।

তারেকের আগে বক্তব্য দেন মালয়েশিয়া বিএনপির নেতারা।

এর আগে তারেক রহমান র‌্যাব বিলুপ্তির দাবিতে মালয়েশিয়ায় গণস্বাক্ষর কর্মসূচিরও উদ্বোধন করেন।






মন্তব্য চালু নেই