মেইন ম্যেনু

হাতিরঝিল যুক্ত হচ্ছে গুলশান লেকে

হাতিরঝিল প্রকল্পকে গুলশান-বনানী লেকের সঙ্গে সংযোগ করা হবে। এর অংশ হিসেবে গুলশান-বনানী লেকের উন্নয়নে ইতোমধ্যে ৪০০ কোটি টাকার প্রকল্পও গ্রহণ করা হয়েছে। হাতিরঝিলের পানি পরিশোধনের মাধ্যমে দুর্গন্ধমুক্ত করে গুলশান বনানী লেকের সঙ্গে সংযোগ কাজ সম্পন্ন করা হবে।

রোববার গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন হাতিরঝিল প্রকল্প এলাকার পরিচ্ছন্নতা অভিযানের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন। মন্ত্রী নিজ হাতে ময়লা আবর্জনা ঝাড়ু দিয়ে এ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন।

গণপূর্তমন্ত্রী বলেন, ‘ঢাকা শহরের প্রাণকেন্দ্রে দৃষ্টিনন্দন এ প্রকল্প এলাকা পরিচ্ছন্ন রাখতে সরকারি ব্যবস্থা চালু আছে। কিন্তু এ বিষয়ে জনগণের মধ্যে সচেতনতা গড়ে তুলতে হবে। নির্ধরিত স্থানে ময়লা আবর্জনা ফেলার বিষয়ে জনগণের মধ্যে অভ্যাস গড়ে তুলতে হবে। হাতিরঝিলের পাশাপাশি অন্যান্য পার্কেও পরিচ্ছন্নতা অভিযান চালানো হবে। এর ফলে জনগণ স্বাচ্ছন্দে এখানে ঘুরে বেড়াতে পারবে।’

হাতিরঝিল যুক্ত হচ্ছে গুলশান লেকেতিনি বলেন, ‘দেশের অন্যতম বৃহৎ এ প্রকল্প বাস্তবায়নে সম্মিলিত উদ্যোগ ছিল। গৃহায়ন ও গণপূর্ত মান্ত্রণালয়ের উদ্যোগে রাজউক, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর, ঢাকা ওয়াসা, বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের সহযোগিতায় প্রায় ২৩শ কোটি টাকা ব্যয়ে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী এ প্রকল্প বাস্তবায়ন করেছে। এ ধরনের একটি উদ্যোগের সুফল পেতে হলে জনগণকেও সচেতন হতে হবে।’

এ সময়ে গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয় বিষয়ক সংসদীয় কমিটির সদস্য আবু সালেহ মো. সাইদ, অ্যাডভোকেট নূরজাহান বেগম (মুক্তা) এমপি, হাতিরঝিলের প্রকল্প পরিচালক মেজর জেনারেল আবু সাঈদ মো. মাসুদ, রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (রাজউক) চেয়ারম্যান জিএম জয়নাল আবেদীনসহ সেনাবাহিনী ও রাজউকের ঊর্ধতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।






মন্তব্য চালু নেই