মেইন ম্যেনু

হরতাল ডেকে মাঠে নেই জামায়াত

মানবতাবিরোধী অপরাধে জামায়াতে ইসলামীর সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল এ টি এম আজহারুল ইসলামের ফাঁসির আদেশের প্রতিবাদে ডাকা জামায়াতের দেশব্যাপী দুদিনের সকাল-সন্ধ্যা হরতালের প্রথম দিন বুধবার দলটির কোনো নেতা-কর্মীকে মাঠে দেখা যায়নি।

বুধবার ভোর ৬টা থেকে হরতাল শুরু হলেও তার কোনো প্রভাব পড়েনি রাজধানীর মানুষের জীবনযাত্রায়। সে কারণে হরতালের প্রথম দিনে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী অলস সময় পার করছে।

হরতালে জামায়াত-শিবিরের কোনো তৎপরতা না থাকায় পুলিশ ও র‌্যাবসহ নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা অন্যান্য বাহিনীর সদস্যদের রাস্তার মোড়ে মোড়ে বসে থাকতে দেখা গেছে।

বুধবার ভোর ৬টা থেকে সকাল সাড়ে ৯টা পর্যন্ত রাজধানীর মালিবাগ, রামপুরা, কাকরাইল, খিলগাঁও, সায়দাবাদ, পুরান ঢাকা, পল্টন, মতিঝিল, হাইকোর্ট ও প্রেসক্লাব এলাকা ঘুরে কোথায়ও হরতালের সমর্থনে জামায়াত-শিবিরের মিছিল চোখে পড়েনি। তবে হরতাল প্রতিরোধে সরকারদলীয় নেতা-কর্মীদের রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউতে বিক্ষোভ-সমাবেশ করতে দেখা গেছে।

বেশ কয়েক জায়গায় পুলিশের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, সকাল থেকে কোনো মিছিল কিংবা কোনো ধরনের পিকেটিং তাদের চোখে পড়েনি।

পুলিশ জানায়, সকাল থেকে দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছে। এখন পর্যন্ত কোথাও কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। এমনকি কোনো মিছিলের সংবাদও পাওয়া যায়নি। রাস্তায় যান চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে।

সরেজমিন ওই সব এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, কিছু দোকানপাট খোলা রয়েছে। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে রাস্তায় যানবাহন চলাচলও বাড়তে থাকে। তবে প্রাইভেটকার চলতে দেখা যায়নি।

কথা হয় সিএনজিচালিত অটোরিকশা চালক নূরুল ইসলামের সঙ্গে। তিনি বলেন, ‘পেটের দায়ে হরতালের মধ্যেও গাড়ি নিয়ে বের হয়েছি। তবে হরতাল হলেও স্বাভাবিকভাবে গাড়ি চালাচ্ছি। এখন পর্যন্ত সাড়ে ৫০০ টাকার মতো আয় করেছি। পথে কোথাও কোনো সমস্যা হয়নি।’

প্রথম দফায় বুধবার সকাল ৬টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত হরতাল চলবে। এ ছাড়া দ্বিতীয় দফায় বৃহস্পতিবার সকাল ৬টা থেকে সোমবার সকাল ৬টা পর্যন্ত এ হরতাল চলবে।



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই