মেইন ম্যেনু

স্তন্যদাত্রী কি না, বিমানবন্দরে পরীক্ষা দিলেন মা!

জার্মানির বিমানবন্দরের কর্মকর্তারা একজন নারীকে স্তন্যদাত্রী কিনা এই পরীক্ষা দিতে বাধ্য করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। ঘটনার পর গায়ত্রী বোস নামের ওই নারী জার্মান পুলিশের কাছে এ বিষয়ে একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। খবর বিবিসির।

গায়ত্রী বোস বলেন, তিনি তার সন্তানকে বুকের দুধ খাওয়ান কিনা নিরাপত্তা বাহিনীর কর্মকর্তাদের সামনে স্তন টিপে তাকে প্রমাণ করতে হয়েছে। জার্মানিতে এরকম একটি ঘটনায় আমি ‘অপমানিত’ বোধ করছি এবং আইনি ব্যবস্থা গ্রহণের কথাও বিবেচনা করছি।

তিনি বলেন, ”আমি তখন একা ছিলাম। বুঝতে পারছিলাম না আমার কি হতে পারে। একসময় আমি কাঁদতে শুরু করি। ”

মিস বোস জানান ‘অপমানজনক’ এই পুরো পরীক্ষা শেষ হতে সময় লাগে ৪৫ মিনিট। যখন তারা আমাকে ছেড়ে দেয় তখন তাদেরকে আমি বলি নিরাপত্তা পরীক্ষার জন্যে এটা কোন উপায় হলো না। আমি তাদেরকে বলি, তোমার কী বুঝতে পারছো যে এইমাত্র তোমরা আমাকে কি করেছো? তোমরা আমাকে আমার স্তন দেখাতে বলেছো!”

গায়ত্রী বোস একটি পরিবহন কোম্পানির ম্যানেজার। তার দুটো বাচ্চা। একটি তিন আর অপরটি সাত মাস বয়সী। ফ্রাঙ্কফুর্ট বিমানবন্দর দিয়ে তিনি তার শিশুকে ছাড়াই সফর করছিলেন। এসময় তার কাছে একটি ব্রেস্ট পাম্প দেখে কর্মকর্তারা তাকে সন্দেহ করেন। এরপর তারা পরীক্ষার সিদ্ধান্ত নেন।

যদিও জার্মান পুলিশ এই অভিযোগের ব্যাপারে মন্তব্য করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে। তবে তারা এও বলেছে, এটি তাদের রুটিন কাজের কোন অংশ নয়।






মন্তব্য চালু নেই