মেইন ম্যেনু

স্কুল শিক্ষকের বিরুদ্ধে অনন্ত জলিলের দশ কোটি টাকার মানহানী মামলা

মনসুন ফিল্মসের নতুন ছবি ‘দ্য স্পাই- অগ্রযাত্রার মহানায়ক’-এর লেখক দাবি করে লিগ্যাল নোটিশ প্রদানকারী হবিগঞ্জের মাধ্যমিক স্কুলের শিক্ষক ও স্থানীয় লেখক উজ্জ্বলের বিরুদ্ধে মানহানি মামলা করেছেন মনসুন ফিল্মসের চেয়ারম্যান অনন্ত জলিল।

তিনি জানান জানান, সম্পূর্ণ অপরিচিত একজন ভুয়া প্রতারকের দেয়া লিগ্যাল নোটিশে আমার সামাজিক মান-সম্মান নষ্ট হওয়ায় আমি তার বিরুদ্ধে ১০ কোটি টাকার মানহানির মামলা করেছি।

মঙ্গলবার অনন্ত জলিলের পক্ষে মনসুন ফিল্মসের কর্মকর্তা মো. শাহাবুর আলম বাদী হয়ে বাংলাদেশ দণ্ডবিধির ৫০০ ধারা অনুযায়ী মামলাটি করেছেন। মঙ্গলবার কোর্টের বিজ্ঞ আইনজীবী অ্যাডভোকেট জসিমউদ্দিন সিএমএম আদালতে ১০ কোটি টাকার এ মানহানির মামলা করেছেন। এর আগে অভিযোগকারী লেখক উজ্জ্বলের পাঠানো লিগ্যাল নোটিশের জবাব দেন অনন্ত জলিলের পক্ষে তার আইনজীবী। জবাবে লেখক উজ্জ্বলের দাবি সম্পূর্ণ মিথ্যা, বানোয়াট এবং উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বলে চিহ্নিত করে নোটিশ প্রদানকারী লেখককে নোটিশের জবাব পাওয়ার ৭ দিনের মধ্যে তার দাবি প্রত্যাহার করে নিঃশর্ত ক্ষমা প্রার্থনা করতে বলা হয়।

উল্লেখ্য, ‘দ্য স্পাই-অগ্রযাত্রার মহানায়ক’ ছবির লেখক দাবি করে হবিগঞ্জের মাধ্যমিক স্কুলের শিক্ষক উজ্জ্বল অনন্ত জলিলকে একটি লিগ্যাল নোটিশ পাঠালে তিনি বিস্ময় প্রকাশ করে জানান, তার মূল ভাবনা নিয়ে ‘দ্য স্পাই- অগ্রযাত্রার মহানায়ক’ ছবির কাহিনী চিত্রনাট্য ও সংলাপ রচনা করেছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত কাহিনীকার ছটকু আহমেদ। তিনি আরও জানান, এখন পর্যন্ত এ ছবির কাহিনী লেখা সম্পন্ন হয়নি এবং এই গল্প নিয়ে অনন্ত জলিল কারও সঙ্গে কোন আলাপ-আলোচনাও করেননি, সেহেতু গল্পের লেখক দাবিকারী উজ্জ্বল একজন প্রতারক এবং তার কোন লেখা আজ পর্যন্ত প্রকাশ হয়নি।

তবে একজন স্কুল শিক্ষকের বিরুদ্ধে ১০ কোটি টাকা পরিমানের মানহানী মামলা করা কতোটা যৌক্তিক তা নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন অনন্ত জলিলের ভক্তদের অনেকেই।






মন্তব্য চালু নেই