মেইন ম্যেনু

সেলুলাইট দূর করার কার্যকরী ৫টি উপায়

“সেলুলাইট” নারীদের সাধারণ একটি সমস্যা। প্রায় ৮৫% নারী এই সমস্যায় ভুগে থাকেন। সাধারণত উরু, পায়ে অথবা শরীরের অন্যান্য অংশে ত্বক ফেটে রুক্ষ,কুঞ্চিত হয়ে যায়। যাকে সেলুলাইট বলা হয়। বাজারে নানা ক্রিম কিনতে পাওয়া যায়। এই ক্রিম বা লোশন ব্যবহারে পরিবর্তে ঘরোয়া কিছু উপায়ে এই সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে পারেন। ঘরোয়া কিছু উপায় নিয়ে আজকের এই ফিচার।

১। অ্যাপেল সাইডার ভিনেগার

এক অংশ অ্যাপেল সাইডার ভিনেগার এবং দুই অংশ পানি একসাথে মিশিয়ে নিন। এই মিশ্রণটি সেলুলাইটের স্থানে ম্যাসাজ করে লাগান। ৩০ মিনিট অপেক্ষা করুন। তারপর কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এটি দিনে দুইবার ব্যবহার করুন। এছাড়া সমপরিমাণ পানি এবং অ্যাপেল সাইডার ভিনেগার মিশিয়ে নিন। এই মিশ্রণটি ত্বকে ম্যাসাজ করে লাগান। প্লাস্টিকের প্যাকেট দিয়ে স্থানটি পেঁচিয়ে রাখুন। এরপর কুসুম গরম পানিতে টাওয়াল ভিজিয়ে স্থানটিতে লাগান। এক ঘন্টা পর কুসুম গরম পানি দিয়ে ফেলুন। এটি দিনে একবার করুন।

২। ড্রাই ব্রাশিং

উরুর সেলুলাইট থেকে মুক্ত হওয়ার সবচেয়ে সহজ উপায় হচ্ছে ড্রাই ব্রাশিং পদ্ধতি ব্যবহার করা। এর ফলে রক্ত সংবহন উন্নত হয়। আপনার ত্বক এবং ব্রাশ উভয়েই যেন শুষ্ক থাকে সেটি খেয়াল করুন। আলতোভাবে আপনার পা থেকে কাঁধ পর্যন্ত ব্রাশ করুন। যে জায়গাগুলোতে সেলুলাইট আছে সেখানে একটু মনোযোগ দিন। শরীরের বাম দিক থেকে ডান দিকে ব্রাশ করবেন। ৫ মিনিট এভাবে ব্রাশ করুন। তারপর গোসল করে ফেলুন। এক্ষেত্রে প্রাকৃতিক তন্তু দিয়ে তৈরি বডি ব্রাশ ব্যবহার করবেন।

৩। গোলমরিচ

গোলমরিচ চর্বি পোড়াতে পারে এবং শরীরকে উতপ্ত করতে পারে। বিপাক ও রক্তসংবহনের ও উন্নতি ঘটাতে পারে গোলমরিচ। এক গ্লাস উষ্ণ গরম পানিতে একটি লেবুর রস ও ১ চামচ থেঁৎলানো আদা এবং ১ চামচ গোলমরিচের গুঁড়া যোগ করুন। এক/দুই মাস যাবৎ এই মিশ্রণটি দিনে ১/২ বার পান করুন।

৩। লেবু

গোসলের আগে ১০ মিনিট যাবৎ লেবুর খোসা ত্বকের উপরিভাগে ম্যাসাজ করুন। লেবু এসিডিক প্রকৃতির হওয়ায় ত্বকের চর্বির প্রতিকারে কাজ করে এবং ত্বককে মসৃণ হতে সাহায্য করে।

৪। কফির গুঁড়ো

সেলুলাইট দূর করতে চমৎকারভাবে কাজ করে কফির গুঁড়ো। এক কপের চার ভাগের এক ভাগ পরিমাণ কফি গুঁড়োর সাথে ৩ টেবিল চামচ চিনি ও ২ টেবিল চামচ নারিকেল তেল মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করুন। এই মিশ্রণটি সেলুলাইট আক্রান্ত ত্বকে লাগিয়ে ম্যাসাজ করতে থাকুন কয়েক মিনিট যাবৎ। তারপর কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। কাঙ্ক্ষিত ফল পাওয়া পর্যন্ত সপ্তাহে ২/৩ দিন এটি ব্যবহার করুন।

৫। সি সল্ট

সি সল্টে প্রচুর পরিমাণ মিনারেল আছে যা ত্বকের নানান সমস্যা সমাধান করে দেয়। গোসলের পানিতে কিছু পরিমাণ সি সল্ট মিশিয়ে নিন। এই পানি দিয়ে নিয়মিত গোসল করুন।






মন্তব্য চালু নেই