মেইন ম্যেনু

সেক্স বাণিজ্যে এগিয়ে ‘হেট স্টোরি টু’

সুরভিন চাওলা অভিনীত ‘হেট স্টোরি টু’ চলচ্চিত্রটি নিয়ে শুরু থেকেই বিরোধীতা করে আসছিলেন বলিউডের মূল ঘরানার নির্মাতারা। তারা যা ভেবেছিলেন, তা-ই ঘটেছে। মুক্তির প্রথম দুই দিনেই চলচ্চিত্রটির বক্স অফিসে জমা পড়েছে প্রায় ১১ কোটি রুপি। অথচ চলচ্চিত্রটির নির্মাণে ব্যয় হয়েছে মাত্র ১০ কোটি রুপি। আর এই বাণিজ্যের অন্যতম অনুসঙ্গ যে সেক্স , তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।

যৌনতা নির্ভর চলচ্চিত্র, বলিউডের জন্যে নতুন কিছু নয়। কিন্তু ‘হেট স্টোরি’ চলচ্চিত্রটির সিক্যুয়াল ‘হেট স্টোরি টু’ মূল ধারার চলচ্চিত্র নির্মাতাদের ভাবিয়ে তুলেছে। কারণ এভাবে স্বল্প বাজেটে যৌনতা নির্ভর চলচ্চিত্র নির্মাণ হতে থাকলে, একসময় হুমকির মুখে পড়বে বলিউডের নামজাদা নির্মাতারা। কারণ তাদের চলচ্চিত্রগুলো ভারতীয় সংস্কৃতি, আচার আচরণ এবং জাতীয় স্বার্থের কথা চিন্তা করে নির্মাণ করা হয়। অথচ প্রতি বছরই ‘হেট স্টোরি টু’ এর মতো চলচ্চিত্রগুলো বাজার থেকে বড় অংকের অর্থ আয় করছে। ফলে দর্শক হারাচ্ছে বলিউড।

অন্যদিকে চলচ্চিত্র সমালোচকরা বলছেন, যৌনতা নির্ভর চলচ্চিত্র নির্মাণ করে বক্স অফিসে ঝড় সৃষ্টি করা খুবই সহজ। কারণ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম, সিনেপ্লেক্স, ইউটিউবের মতো বিষয়গুলো এই বিষয়টিকে ত্বরান্নিত করেছে। তাই সানি লিওনের ‘রাগিনী এমএমএস টু’ বক্স অফিসে চলতি বছরের অন্যতম সফল চলচ্চিত্র।






মন্তব্য চালু নেই