মেইন ম্যেনু

দ্বিতীয় ওয়ানডে

সিরিজে সমতা আনল ভারত

পাকিস্তানের মত ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলটাও পুরো আনপ্রেডিক্টেবল। এক ম্যাচে অতিমানবীয় কিছু করে ফেলবে তো পরের ম্যাচেই আবার যাচ্ছেতাই অবস্থা। এই যেমন ভারতের বিপক্ষে চলতি সিরিজে। কোচিতে প্রথম ওয়ানডেতে ভারতকে একপ্রকার গুঁড়িয়ে দিয়েছিল ডোয়াইন ব্রাভোরা। অথচ দিল্লিতে এসে সম্পূর্ণ তার বিপরীত চিত্র। শনিবার ৪৮ রানে তাদেরকে হারিয়ে সিরিজে সমতা আনলো স্বাগতিক ভারত।
ফিরোজ শাহ কোটলায় ভারতের ছুড়ে দেওয়া ২৬৩ রানের জবাবে ২১৫ রানেই অলআউট ওয়েস্ট ইন্ডিজ। বল তখনও বাকি ছিল ২১টি। একমাত্র ডোয়াইন স্মিথ ছাড়া আর কোন ব্যাটসম্যান দাঁড়াতে পারেনি ভারতীয় বোলারদের সামনে।
৯৭ বল খেলে ১১টি চার আর ২টি ছক্কার মারে ৯৭ রান করে আউট হন স্মিথ। আফসোস তার জন্য। মাত্র তিন রানের জন্য ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি বঞ্চিত হলেন তিনি।
স্মিথ ছাড়া একমাত্র পোলার্ডই ছিলেন কিছুটা ছন্দে। ৫০ বল খেলে ৪০ রান করেন তিনি। বাকি ব্যাটসম্যানরা ছিলেন শুধু আসা যাওয়ার মিছিলে। আগের ম্যাচে সেঞ্চুরি করা মারলন স্যামুয়েলস আউট হন মাত্র ১৬ রান করে।
ভারতীয় বোলারদের মধ্যে মোহাম্মদ শামি ৩৬ রান দিয়ে নেন ৪ উইকেট। আগের ম্যাচে হারলেও বিধ্বংসী ছিলেন শামি। সেবারও তার শিকার ৪ ব্যাটসম্যান। এ কারনে শনিবার ম্যাচ শেষে সেরার পুরস্কার ওঠে তার হাতে। এছাড়া রবীন্দ্র জাদেজা নেন ৪৪ রানে ৩ উইকেট।
এর আগে টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ৭ উইকেট হারিয়ে ২৬৩ রান সংগ্রহ করে ভারত। দ্রুত তিন উইকেট পড়ে গেলে চতুর্থ উইকেট জুটিতে বিরাট কোহলি আর সুরেশ রায়না গড়েন ১০৫ রানের জুটি। দু’জনই আউট হন ব্যাক্তিগত ৬২ রানের মাথায়। ৫১ রানে অপরাজিত ছিলেন অধিনায়ক ধোনি।
ক্যারিবীয় বোলারদের মধ্যে জেরোমে টেলর ৫৪ রান দিয়ে নেন ৩ উইকেট। এছাড়া এক উইকেট করে নেন রামপাল, বেন, ডোয়াইন ব্রাভো এবং ড্যারেন স্যামি।






মন্তব্য চালু নেই