মেইন ম্যেনু

সার্জারি করে সমালোচিত আয়েশা টাকিয়া

মিষ্টি চেহারা আর অভিনয় দিয়ে বলিউডে পাকা আসন গড়েছিলেন আয়েশা টাকিয়া। বিয়ের পর বলিউডে অনিয়মিত হয়ে যান। সম্প্রতি আবারও আলোচনায়। কারণ, ঠোঁটের সার্জারি করিয়ে পুরো চেহারা পাল্টে ফেলেছেন তিনি।

আয়েশাকে এখন কেমন দেখাচ্ছে এ নিয়ে এখন তর্ক-বিতর্ক শুরু হয়েছে। তবে বেশিরভাগই এ সার্জারির বিপক্ষে মত দিয়েছেন। তাদের বক্তব্য, এই সার্জারি আয়েশার স্বাভাবিক সৌন্দর্য্য করে তাকে খুবই বিদঘুটে আকৃতি দিয়েছে।

২০০৪ সালে ‘টারজান : দ্য ওন্ডার কার’ দিয়ে আয়েশার বলিউড অভিষেক। প্রথম ছবিতেই নজরকাড়া অভিনয়ের জন্য সেরা নবাগত অভিনেত্রী হিসেবে ফিল্মফেয়ার পুরস্কার জিতে নেন।

২০০৬ সালে ‘ডোর’ ছবি করে সমালোচকদের মন জয় করে নেন। ২০০৯ সালে সালমান খানের সঙ্গে ‘ওয়ান্টেড’ ছবি দিয়ে ফের আলোচনায় আসেন আয়েশা। সম্প্রতি এক ইভেন্টে আয়েশার এ নতুন রূপ (!) আবিষ্কার করেন ভারতের বিনোদন চিত্রগ্রাহকরা। যদিও তারা নাকি শুরুতেই চিনতেই পারেননি মিষ্টি হাসির এ অভিনেত্রীকে।






মন্তব্য চালু নেই