মেইন ম্যেনু

সাকিবের দ্বিতীয় উইকেট, জিম্বাবুয়ে ১৯২/৬

জিম্বাবুয়ে ও বাংলাদেশের মধ্যকার টেস্ট ম্যাচে টসে জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন জিম্বাবুয়ের অধিনায়ক ব্রেন্ডন টেইলর। মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে শনিবার সকাল সাড়ে ৯টায় ম্যাচটি শুরু হয়।

 

ইনিংসের প্রথম ওভারেই জিম্বাবুয়ে শিবিরে আঘাত করেছেন পেসার শাহাদাত হোসেন। ১৯ মাস পর জাতীয় দলে জায়গা পাওয়া শাহাদাত ইনিংসের পঞ্চম বলে ভুসিমুজি সিবান্দাকে (৬) সাজঘরে ফেরত পাঠান। উইকেটের পেছনে ক্যাচটি ধরেন মুশফিকুর রহিম।

 

এরপর ইনিংসের ১২তম ও ব্যক্তিগত তৃতীয় ওভারে হ্যামিল্টন মাসাকাদজাকে সাজঘরে ফেরত পাঠান সাকিব আল হাসান। মিড অফে মাসাকাদজার ক্যাচটি ধরেন অভিষিক্ত জুবায়ের হোসেন লিখন। ৩২ বলে ১৩ রান করেন মাসাকাদজা।

 

লাঞ্চের বিরতি শেষে মাঠে নামে জিম্বাবুয়ের দুই ব্যাটসম্যান সিকান্দার রাজা  ও ব্রেন্ডন টেলর। দলীয় ৮৩ রানের মাথায় জিম্বাবুয়ের অধিনায়ক টেলরকে সাজঘরে ফেরান অভিষিক্ত জুরায়ের হোসেন লিখন। এর মধ্য দিয়ে স্বপ্নের অভিষেক হলো বাংলাদেশি এই তরুণ স্পিনারের।

 

এদিকে, হাফসেঞ্চুরির দেখা পেয়েছেন জিম্বাবুয়ের সিকান্দার রাজা (৫১)। তাকে যোগ্য সঙ্গ দিচ্ছেন এলটন চিগুম্বুরা (২৫)। তবে রাজার ছন্দে আঘাত দিয়েছেন যুবায়ের। ব্যক্তিগত ৫১রানের মাথায় যুবায়েরের শিকার হয়ে সাজঘরে ফেরেন সিকান্দার রাজা।

 

১৪২ রানের মাথায় জিম্বাবুয়ের পঞ্চম উইকেটের পতন হয়। সাকিব আল হাসানের শিকার হয়ে বিদায় নিয়েছেন এলটন চিগুম্বুরা (২৯)।

 

ষষ্ঠ উইকেটে রেজিস চাকাভাকে নিয়ে এগিয়ে যান ক্রেগ আরভিন। দ্বিতীয়ে সেশন শেষে জিম্বাবুয়ের ঝুলিতে জমা পড়ে ১৭৯ রান।

 

অবশেষে  উইকেটের দেখা পেয়েছেন তাইজুল ইসলাম। তিনি ফিরিয়েছেন ক্রেগ আরভিনকে(৩৪)।

 

 

এদিকে, বাংলাদেশ দলে ১৯ বছর বয়সি জুবায়ের হোসেন লিখন একাদশে জায়গা পেয়েছেন। ৭৪তম টেস্ট ক্রিকেটার হিসেবে অভিষেক হলো লিখনের। এ ছাড়া জিম্বাবুয়ে দলে অভিষেক হয়েছে তাফাজওয়া কামুঙ্গোজির।

 

বাংলাদেশ দল : মুশফিকুর রহিম (অধিনায়ক), তামিম ইকবাল, সাকিব আল হাসান, শামসুর রহমান শুভ, মুমিনুল হক, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, শুভাগত হোম, তাইজুল ইসলাম, জুবায়ের হোসেন লিখন, শাহাদাত হোসেন রাজীব ও আল-আমিন হোসেন।

 

জিম্বাবুয়ে দল : ব্রেন্ডন টেইলর (অধিনায়ক), ভুসিমুজি সিবান্দা, সিকান্দার রাজা, রেজিস চাকাভা,  টেন্ডাই চাতারা, এলটন চিগুম্বুরা, ক্রেগ আরভিন, তাফাজওয়া কামুঙ্গোজি, হ্যামিল্টন মাসাকাদজা,  জন নিয়ম্বু ও তিনাশে পানিয়াঙ্গারা।






মন্তব্য চালু নেই