মেইন ম্যেনু

‘সরকার দেশকে নৈরাজ্যের দিকে ঠেলে দিয়েছে’

বিএনপির নেতা-কর্মীদেরকে হত্যা-গুম-অপহরণ ও গ্রেফতার-নির্যাতনের মাধ্যমে সরকার দেশকে ‘ভয়াবহ নৈরাজ্যের’ দিকে ঠেলে দিয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন দলটির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

৫ জানুয়ারির ‘প্রহসনের’ নির্বাচনের মাধ্যমে ক্ষমতা ‘দখল’ করার পর এই অবস্থা সৃষ্টি করা হয়েছে বলে দাবি করেন তিনি।

শ্রমিক দলের নেতা সুমন ভূঁইয়াকে গ্রেফতার করায় মঙ্গলবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব এ কথা বলেন। গ্রেফতারের ঘটনার তীব্র ক্ষোভ, নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান তিনি।

মির্জা আলমগীর বলেন, ‘ঢাকা মহানগর দক্ষিণ জাতীয়তাবাদী শ্রমিক দলের সিনিয়র সহ-সভাপতি সুমন ভূঁইয়াকে গ্রেফতার বর্তমান অবৈধ সরকারের ধারাবাহিক নীতি-নৈতিকতা বিরোধী, নির্মম ও নিষ্ঠূর কর্মকাণ্ড থেকে কোনো বিচ্ছিন্ন বা আলাদা ঘটনা নয়। বিরোধী দলের নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে বানোয়াট ও হাস্যকর মামলা দায়ের করে গ্রেফতারের মাধ্যমে তাদের ওপর জুলুম-নির্যাতন চালানো হচ্ছে।’

তিনি বলেন, ‘বর্তমান ভোটারবিহীন অবৈধ সরকার এসব কুকর্ম সাধন করে দেশকে ক্রমান্বয়ে ধ্বংসের দিকে ঠেলে দিচ্ছে।’

বিএনপির এই মুখপাত্র অবিলম্বে সুমন ভূঁইয়ার নিঃশর্ত মুক্তির জোর দাবি জানান।

অপর এক বিবৃতিতে সুমন ভূঁইয়াকে গ্রেফতারের ঘটনায় নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ জাতীয়তাবাদী শ্রমিক দলের সভাপতি কাজী আমির খসরু এবং সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম বাদল।

বিবৃতিতে তারা বলেন, ‘বর্তমান শাসকগোষ্ঠী নির্যাতন নিপীড়ন চালিয়ে ক্ষমতাকে দীর্ঘস্থায়ী করতে পারবে না। দমন-পীড়নের মাত্রা বৃদ্ধি করা হলেও সরকার পতন আন্দোলন থেকে নেতা-কর্মীদের বিরত রাখা যাবে না।’ তারা সুমন ভূঁইয়ার নিঃশর্ত মুক্তির জোর দাবি জানান।






মন্তব্য চালু নেই