মেইন ম্যেনু

সরকারকে আরও তথ্য দিল ফেসবুক

আবারও বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে ব্যবহারকারীর তথ্য চেয়ে করা অনুরোধে সাড়া দিয়েছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ। এ বছরের জানুয়ারি থেকে জুন মাস পর্যন্ত তথ্য নিয়ে ২১ ডিসেম্বর ফেসবুক প্রকাশিত ‘গ্লোবাল গভর্নমেন্ট রিকোয়েস্টস রিপোর্ট’-এ বলা হয়, ওই সময়ের মধ্যে বাংলাদেশ থেকে ৯টি অ্যাকাউন্টের ব্যাপারে ১০টি অনুরোধ করা হয়েছিল।

ফেসবুক প্রতি ছয় মাস অন্তর এ প্রতিবেদন প্রকাশ করে। এতে কোন দেশের সরকার ফেসবুকের কাছে কী ধরনের অনুরোধ জানায়, তা তুলে ধরা হয়। তবে কোন অ্যাকাউন্টের তথ্য চাওয়া হয়, তা উল্লেখ করা হয় না।

এবারের প্রতিবেদনে ২০১৬ সালের প্রথম ছয় মাসে বিভিন্ন দেশের সরকারের কাছ থেকে পাওয়া অনুরোধের তথ্য প্রকাশ করেছে ফেসবুক। ফেসবুকের পূর্ণাঙ্গ প্রতিবেদনে বাংলাদেশ অংশে দেখা গেছে, এ বছরের জানুয়ারি থেকে জুন এই ছয় মাসে মোট ১০টি অনুরোধ করা হয়েছে ফেসবুককে। এর মধ্যে আইনিপ্রক্রিয়া-সংক্রান্ত (লিগ্যাল প্রসেস) ৯টি অনুরোধে ৮টি অ্যাকাউন্টের তথ্য জানতে চাওয়া হয়েছে। এ ক্ষেত্রে ফেসবুক ১১.১১ শতাংশ তথ্য সরবরাহ করেছে। এ ছাড়া জরুরি প্রয়োজনে একটি অনুরোধে একটি অ্যাকাউন্টের তথ্য চাওয়া হলে তার সম্পূর্ণ তথ্য দিয়েছে ফেসবুক।

ফেসবুকের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিশ্বজুড়ে বিভিন্ন দেশের সরকারের কাছ থেকে ফেসবুক ব্যবহারকারীদের ব্যক্তিগত তথ্য সংরক্ষণ করে রাখার অনুরোধ বাড়ছে। তবে এ বছরের প্রথম ছয় মাসে বাংলাদেশ থেকে এ ধরনের কোনো অনুরোধ যায়নি।

তবে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি) থেকে ২টি কনটেন্ট সরিয়ে ফেলতে ফেসবুককে অনুরোধ করা হলে ফেসবুক তা সরিয়ে নিয়েছে।

এর আগে এ বছরের এপ্রিল মাসে প্রথমবারের মতো বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে ব্যবহারকারীর তথ্য চেয়ে করা অনুরোধে সাড়া দেয় ফেসবুক কর্তৃপক্ষ।

২০১৫ সালের জুলাই থেকে ডিসেম্বর মাস পর্যন্ত তথ্য নিয়ে ২৮ এপ্রিল ফেসবুক ওই প্রতিবেদন প্রকাশ করে। ওই সময়ের মধ্যে বাংলাদেশ থেকে ৩১টি অ্যাকাউন্টের ব্যাপারে ১২টি অনুরোধ করা হয়েছিল। এর মধ্যে ১৬ দশমিক ৬৭ শতাংশ তথ্য দেওয়া হয়। এ ছাড়া বিটিআরসির অনুরোধে সাড়া দিয়ে চারটি কনটেন্ট সরিয়ে ফেলা হয়।

এদিকে বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, ২০১৬ সালের প্রথম ছয় মাসে বিভিন্ন সরকারের পক্ষ থেকে ফেসবুকের কাছে অ্যাকাউন্ট-সংক্রান্ত তথ্য চাওয়ার হার ২৭ শতাংশ বেড়েছে। ওই সময় মোট ৫৬ হাজার ২২৯টি অ্যাকাউন্টের তথ্য চাওয়া হয়েছে যা গত বছরের শেষ ছয় মাসে ছিল ৪৬ হাজার ৭১০। ফেসবুক কর্তৃপক্ষ বলছে, এবারে যেসব তথ্য চাওয়া হয়েছে তার অর্ধেকের বেশি প্রকাশের অনুমতিহীন নির্দেশ বলে ফেসবুক তা ব্যবহারকারীকে জানাতে পারেনি। তবে স্থানীয় আইন লঙ্ঘনকারী পোস্ট সরানোর অনুরোধ ৮৩ শতাংশ কমেছে।

বিভিন্ন দেশের সরকারের কাছ থেকে তথ্য সংরক্ষণ করে রাখার নির্দেশ-সংক্রান্ত তথ্য প্রথমবারের মতো প্রকাশ করল ফেসবুক। ৬৭ হাজার ১২৯ অ্যাকাউন্ট সংরক্ষণের জন্য ৩৮ হাজার ৬৭৫টি অনুরোধ পেয়েছে ফেসবুক।






মন্তব্য চালু নেই